নাগপুর: কংগ্রেসকে চিন্তায় ফেলে দিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির একটি সিদ্ধান্তে কংগ্রেসের অন্দরেই প্রবল বিতর্ক৷ আরএসএসের প্রশিক্ষণ শিবিরে ভাষণ দিতে চলেছেন প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ নাগপুরে ৭ জুন আরএসএস কর্মীদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন কংগ্রেসের দীর্ঘদিনের রক্ষক৷ খবরটি প্রকাশ্যে আসতেই রাজনৈতিক মহলে শুরু জল্পনা৷

প্রতি বছরই নাগপুরে আরএসএসের হেড কোয়ার্টারে প্রশিক্ষণ শিবির হয়৷ অনুষ্ঠান যোগ দেন, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা আরএসএসের মোট ৮০০ প্রথম সারির কর্মী৷৷ মূলত, আরএসএসের বরিষ্ঠ কর্মীদের নিয়েই এই প্রশিক্ষণ শিবির৷ যেখানে আসেন বিজেপির হেভিওয়েট নেতারাও৷ সেই নেতাদের সঙ্গেই মঞ্চে থাকবেন প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ পেশ করবেন নিজের ভাষণ৷

১৯৬৯ সাল থেকে কংগ্রেসের একনিষ্ঠ কর্মী প্রণব৷ ইন্দিরা গান্ধির বিশ্বাস অর্জন করেছিলেন তাড়াতাড়ি৷ একটাসময়ে তাঁকে কংগ্রেসের মস্তিষ্কও বলা হত৷ যাঁর বুদ্ধিমত্তায় কংগ্রেস বরাবরই লাভবান হয়েছে৷ তাই স্বভাবতই প্রশ্ন উঠছে, লোকসভা নির্বাচনের আগে কেন আরএসএসের সভায় প্রণব ভাষণ দিচ্ছেন? তবে কি কংগ্রেসের সঙ্গে প্রণবের দূরত্ব বাড়ছে? কোথাও কি পরোক্ষ ভাবে মোদীকেই সমর্থন করছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি?অবশ্য, রাষ্ট্রপতি পদে থেকে অনেকবারই মোদী সরকারের সমালোচনা করেছেন প্রণব৷ অবসরের পরেও বিজেপির বিভিন্ন নীতির উপর প্রশ্ন তুলেছেন৷ আরএসএসের কার্যকলাপেও যথেষ্ট ক্ষুব্ধ ছিলেন৷ আর ঠিক সেই কারণেই আরএসএস হেড কোয়ার্টারে প্রণবের ভাষণকে মেনে নিতে পারছে না বিজেপি বিরোধী কয়েকটি রাজনৈতিক দল৷ সবচেয়ে বড় ধাক্কা খেয়েছে কংগ্রেস বলে মনে করা হচ্ছে৷ যদিও এই বিষয়ে এখনও কংগ্রেসের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি৷

মুখ খোলেনি আরএসএসও৷ এখনও প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ভাষণ প্রসঙ্গে আরএসএস কিছু জানায়নি৷ এমনকী তাদের ওয়েবসাইটেও প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ভাষণ নিয়ে তথ্য মেলেনি৷ তবে বিতর্ক উস্কে দিয়েই ‘সঠিক সময় আসলে খবর দেওয়া হবে’ বলে জানায় আরএসএস৷