স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: কাটমানি ফেরতের দাবি ঘিরে উত্তাল হয়ে উঠল পূর্ব মেদিনীপুরের পটাশপুর৷ পঞ্চায়েত সদস্যার বাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখানোর সময়ে বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল গ্রামবাসীদের বিরুদ্ধে৷

বৃহস্পতিবার স্থানীয় বাসিন্দারা একত্রিত হয়ে কাটমানি ফেরতের দাবিতে পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যার বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। অভিযোগ, পঞ্চায়েত সদস্যা দাবি না মেনে নিলে তার বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পটাশপুর ২নং ব্লকের পিণ্ডডুই গ্ৰামে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, তাঁরা কোনও রাজনৈতিক দলের সদস্য নন৷ সকলে একত্রিত হয়ে পঞ্চায়েত সদস্যা পম্পা প্রধানের বাড়িতে গিয়েছিলেন গ্ৰামের উন্নয়ন ও কাটমানির বিষয়ে আলোচনা করতে। কিন্তু তিনি কোনও কথা না শুনে হঠাৎ নিজের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেন৷ এই ঘটনার পুরো দায় চাপিয়ে দেওয়া হয় গ্ৰামবাসীদের ওপর।

ওই পঞ্চায়েত সদস্যার পরিবারের অভিযোগ, বিজেপির লোকেরা কাটমানি ফেরতে দাবিতে বাড়ির সামনে এসে বিক্ষোভ দেখায়। কাটমানি ফেরত না দেওয়ায় কয়েকজন মিলে বাড়ির পেছনে গিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। প্রাক্তন পঞ্চায়েত সদস্যা মঞ্জুরানী প্রধানের উপর হামলা চালায়। এই ঘটনার পরে হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। মঞ্জুরানীর বৌমা পম্পা প্রধান বর্তমান পটাশপুর-২ পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যা।

ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ আসে৷ পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে গ্ৰামবাসীরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পটাশপুর থানার পুলিশ।