বার্মিংহ্যাম: এজবাস্টনে রবিবাসরীয় লড়াইয়ে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে বিরাট কোহলিদের হয়ে গলা ফাটাবেন পাকিস্তানি সমর্থকরা৷ প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক নাসের হোসেনের টুইটারে ভারত-ইংল্যান্ড ম্যাচ নিয়ে পাক সমর্থকদের সামনে এই প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছিলেন৷ শুনতে অবাক লাগলেও, ইংরেজদের বিরুদ্ধে বাইশ গজে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে সমর্থন করবে বলে জানান পাক ফ্যানেরা৷

বুধবার এজবাস্টনে নিউজিল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে যাওয়ার আশা জিইয়ে রেখেছে ১৯৯২-এর বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা৷ বাবর আজমের অপরাজিত সেঞ্চুরিতে চলতি বিশ্বকাপে প্রথমবার হারের মুখ দেখে নিউজিল্যান্ড৷ টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৩৭ রান তুলেছিল নিউজিল্যান্ড ৷ গ্র্যান্ডহোমকে সঙ্গে নিয়ে কিউয়িদের লড়াইয়ের রদস এনে দিয়েছিলেন নিশাম৷ টিনেজার শাহিন শাহ আফ্রিদির বাঁ-হাতি পেস বোলিং কিউয়ি ব্যাটিং লাইন-আপে ধস নামায়৷ রান তাড়া করে ৪৯.১ ওভারে ৪ উইকেটে ২৪১ রান তুলে ম্যাচ জিতে নেয় পাকিস্তান৷

বৃহস্পতিবার এজবাস্টনে সরফরাজদের জয়ের পাক ফ্যানেদের কাছে ভারত-ইংল্যান্ড ম্যাচে কাদের সাপোর্ট করবে বলে টুইটারে প্রশ্ন রাখেন প্রাক্তন ইংরেজ অধিনায়ক৷ টুইটারে নাসের হোসেন লেখেন, “Question to all Pakistan fans .. England vs INDIA .. Sunday .. who you supporting?”

পাকিস্তান ফ্যানেরা প্রাক্তন ইংল্যান্ড ক্যাপ্টেনকে রি-টুইট করে আহমেদ সালেম নামক এক পাক সমর্থক লেখেন, ‘Yes, ofcourse we love our neighbour’s. Ofcourse we support India. ????❤???? @MehrTarar #CWC19. জুনের মালিক নামে এক পাকিস্তানি ফ্যান হোসেনকে রি-টুইট করেন লেখেন, ‘Neighbors Support’.

রবিবার এজবাস্টনেই কোহলিদের বিরুদ্ধে ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচ খেলতে নামছে মর্গ্যানবাহিনী৷ আগের দু’টি ম্যাচে হেরে কোণঠাসা ‘ফেভারিট’ ইংল্যান্ড৷ সুতরাং ভারতের কাছে হার মানেই সেমিফাইনালে ওঠার আশা শেষ ইংরেজদের৷ শ্রীলঙ্কা ও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে এই মুহূর্তে ৭ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবলে চার নম্বরে রয়েছে ইংল্যান্ড৷ সুতরাং সেমিফাইনালে যেতে হলে লিগের শেষ দু’টি ম্যাচ অর্থাৎ ভারত ও নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে জিততে হবে মর্গ্যানদের৷

নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ৭ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে এই মুহূর্তে ৬ নম্বরে রয়েছে পাকিস্তান৷ অর্থাৎ সেমিফাইনালে ওঠার আশা এখনও জিইয়ে রয়েছে সরফরাজদের৷ লিগের শেষ দু’টি ম্যাচে পাকিস্তান জিতলে এবং শ্রীলঙ্কা ও ইংল্যান্ড লিগে তাদের বাকি ম্যাচগুলির মধ্যে একটি করে হারলে শেষ চারের ছাড়পত্র পেয়ে যাবে পাকিস্তান৷ অর্থাৎ রবিবার ম্যাঞ্চেস্টারে ভারতের কাছে ইংল্যান্ডের হার মানে সেমিফাইনালে ওঠার রাস্তা চওড়া হবে পাকিস্তানের৷ লিগে সরফরাজদের শেষ দু’টি লড়াই আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে৷