ইসলামাবাদ: ভারত-আমেরিকা সামরিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে চিনের খসড়া নিরাপত্তা চুক্তিতে অনুমোদন দিল পাকিস্তানের মন্ত্রিসভা। চলতি বছরের জুলাই মাসে পাক প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়। লন্ডন থেকে ওপেন হার্ট সার্জারি শেষে জুলাইয়ের ১৫ তারিখে প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ পাকিস্তান ফেরার পর লাহোরের গভর্নর হাউজে এই সংক্রান্ত বৈঠক হয়।

গত বছরের এপ্রিলে চীনা প্রেসিডেন্ট জি জিংপিং-এর পাকিস্তান সফরের সময় সহযোগিতামূলক চুক্তির বিষয়ে সম্মত হয় বেজিং ও ইসলামাবাদ। লাহোরে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে এই নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়ে। পাশাপাশি, এই বিষয়ে পাকিস্তানের বিদেশ, প্রতিরক্ষা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকেরও মতামত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া, পাক প্রতিরক্ষা উৎপাদন মন্ত্রক ও জয়েন্ট স্টাফ হেড কোয়ার্টারের মতামতও আলোচনায় ঠাঁই পেয়েছে। এই আলোচনার ভিত্তিতেই খসড়া চুক্তি অনুমোদন করা হয়। এতে দেশ দু’টির ভৌগলিক অখণ্ডতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতি সম্মান দেখানো হয়েছে। এ ছাড়া, এতে অস্ত্র ও প্রযুক্তি হস্তান্তরসহ নিরাপত্তা সংক্রান্ত অন্যান্য বিষয়ও অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

উল্লেখ্য, এই দুই শত্রুদেশের আশঙ্কা বাড়িয়ে সম্প্রতি দুটি গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে ভারত। একটি ভিয়েতনামের সঙ্গে ও অন্যটি আমেরিকার সঙ্গে। দক্ষিণ চিন সাগরে নজরদারিতে সুবিধার জন্য ভিয়েতনামকে প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে অর্থ সাহায্য করেছে ভারত। এছাড়া আমেরিকার সঙ্গে একটি চুক্তি হয়েছে, যাতে দুই দেশ একে অপরের সামরিক ঘাঁটি ব্যবহার করতে পারে অনায়াসে।