নয়াদিল্লি: রমজানে বন্ধুত্বের হাত বাড়াতে চাইছে পাকিস্তান। ট্রাকে করে তারা ভারতে পাঠাতে চায় ‘রূহ আফজা।’ গোলাপের ফ্লেভারের লাল রঙের এই পানীয় ভারত ও পাকিস্তান দুই দেশেই বেশ জনপ্রিয়। তাই রমজানে ভারতীয়দের পিপাসা মেটাতে এই পানীয় পাঠাতে চাইছে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের ফরেন অফিসের মুখপাত্র মহম্মদ ফয়জল বলেন, ‘ পাকিস্তান থেকে রূহ আফজা পাঠালে যদি ভারতীয়দের তৃষ্ণা মেটে, তাহলে আমরা তা পাঠাতে রাজি। আসলে ভারতে এই পানীয়ের প্রস্তুতকারক সংস্থা ‘হাম দরদ’ ল্যাবরেটরি জানিয়েছে যে ভারতে এই পানীয় প্রয়োজনের তুলনায় কম রয়েছে। উপাদানের অভাবের জন্যই কম উৎপন্ন হয়েছে এই পানীয়। তাই সেই অভাব পূরণ করতে চাইছে পাকিস্তান।

ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে ভারতে এই পানীয় পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছে পাক সংস্থা। তারা জানিয়েছে ‘আমরা সহজেই ট্রাকের মাধ্যমে ওই পানীয় পাঠাতে পারি ভারতে। ভারত সরকার অনুমতি দিলে তবেই তারা ভারতে পাঠাবে রূহ-আফজা।

আসলে অবিভক্ত ভারতেই রূহ-আফজা তৈরি শুরু করে এই হামদরদ ল্যাবরেটরি। ১৯০৬ সালে হামদরদ দাওয়াখানা নামে ওই সংস্থার শিলান্যাস করেন হাকিম হাফিজ আব্দুল। ১৯০৭- সালে বাজারে আসে রূহ-আফজা। পরে দেশভাগ হওয়ার পর বড় ভাই থেকে যান ভারতে। আর ছোট ভাই চলে যান পাকিস্তানে। এরপর করাচিতে শুরু হয় এই পানীয়ের উৎপাদন।

যদিও পাকিস্তানের এই প্রস্তাবের মধ্যে ভারতীয় সংস্থা জানিয়েছে যে পর্যাপ্ত পরিমাণেই রয়েছে রূহ-আফজা। কেনা যাবে যে কোনও দোকান থেকে। অনলাইনে বা কাগজে ভুয়ো খবর না ছড়ানোর আর্জি জানিয়েছে ওই সংস্থা। আসলে কয়েকদিন আগেই সংবাদমাধ্যমে খবর হয় যে প্রায় চার মাস ধরে সেভাবে পাওয়া যাচ্চে না রূহ-আফজা।