ইসলামাবাদ: পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর হত্যাতে পাকিস্তান তালিবানের সংগঠনের হাত ছিল বলে তারাই দাবি করেছে৷ এই জঙ্গি সংগঠনের মতে, ভুট্টো আমেরিকার সঙ্গে হাত মিলিয়ে মুজাহিদিন-এ-ইসলামের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছিল৷

পড়ুন: রেকর্ড! মাত্র ১০দিনেই সেতু পুনর্নির্মাণ করল ভারতীয় সেনা

ডেলি টাইমস-এ প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, আজ পর্যন্ত কোনও জঙ্গি সংগঠন বেনজির ভুট্টোর হত্যার দায় স্বীকার করেনি৷ প্রথমবার পাকিস্তান তালিবান প্রধান, উর্দুতে লেখা বই- ইনকিলাব মহসুদ দক্ষিণী ওয়াজিরিস্তান: ব্রিটিশ রাজ সে আমরিকি সাম্রাজ্যবাদ তক-এ এই হত্যার দায় স্বীকার করেছে৷ এই বইয়ে দাবি করা হয়েছে, আমেরিকা চেয়েছিল ক্ষমতায় ফিরে আসুক ভুট্টো৷ এছাড়া আমেরিকা, বেনজিরকে মুজাহিদিন-এ-ইসলামের বিরুদ্ধে অ্যাকশন প্ল্যানও দিয়েছিল৷

পড়ুন: বিতর্কিত দ্বীপের কাছে ঘুরছে চিনা সাবমেরিন! রাখা হচ্ছে নজরে

প্রসঙ্গত, পাকিস্তান পিপলস্ পার্টি(পিপিপি) প্রধান বেনজির ভুট্টো ২০০৭সালের ২৭ ডিসেম্বর আত্মঘাতী হামলায় মৃত্যু হয়৷ সে সময় রাওয়ালপিন্ডিতে একটি নির্বাচনী প্রচার সেরে বের হচ্ছিলেন তিনি৷

পড়ুন: তিনি বর্ণবাদী নন, সমালোচনার চাপে মুখ খুললেন ট্রাম্প

পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশারফ তেহরিক-এ-তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি)-এর ওপর ভুট্টোর হত্যার অভিযোগ আনে৷ যদিও সে সময় এই সংগঠন এই অভিযোগ অস্বীকার করে৷ ওই বইয়ে দাবি করা হয়, আত্মঘাতী হামলাকারীরা ছিল বিলাল ওরফে সইদ এবং ইকরামুল্লা৷ আরও জানা যায়, প্রথমে বিলাল ভুট্টোকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়, যা তার গলায় গিয়ে লাগে৷ এর পরে বিলাল তার জ্যাকেটে লাগানো বোমাতে হামলা করে৷ ৫৮৮ পৃষ্ঠার এই বই গত বছর ৩০ নভেম্বর প্রকাশিত হয়৷