ইসলামাবাদ: বিচারকের বিরুদ্ধে বলতে গিয়ে বিপাকে পাকিস্তানে একটি নিউজ চ্যানেলের অ্যাঙ্কর। বিচারকদের অবমাননা ও অপমানের অভিযোগে চ্যানেলটিকে ৩০ দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পাকিস্তানের মিডিয়া মনিটরিং অর্গানাইজেশন এই পদক্ষেপ নিয়েছে। যে চ্যানেলটিকে এই শাস্তি দেওয়া হয়েছে সেটির নাম বল টিভি।

ডন নিউজের রিপোর্ট মোতাবেক, চ্যানেলটি ৩০ দিনের জন্য বন্ধ করা হয়েছে আবার সঙ্গে ১০ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, এই সময়ের মধ্যে চ্যানেলের লাইসেন্সও বাতিল করা হয়েছে। বল টিভি অ্যাঙ্কর সামি ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে লাহোর হাইকোর্টের বিচারক নিয়োগের জন্য অবমাননাকর কথা এবং বিচারকদের বিরুদ্ধে বক্তব্য বলার অভিযোগ এনেছে। ১৩ জানুয়ারি এই প্রোগ্রামটি করেছিল সামি ইব্রাহিম।

আরও পড়ুন – বন্দি কেন নাভালনি স্লোগানে মুখরিত, গ্রেফতার তিন হাজার রুশ

চ্যানেলের বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপের বিষয়ে, পাকিস্তানের সংবাদ মাধমের ওপর নজরদারি করা সংস্থা PEMRA জানিয়েছে অ্যাঙ্কর সংবিধানের ৬৮ অনুচ্ছেদ এবং PEMRA র নিয়ম লঙ্ঘন করেছে এবং বিচারকদের বিরুদ্ধে অবমাননাকর মন্তব্য করেছে।

উল্লেখ্য, এই পদক্ষেপ নেওয়ার আগে চ্যানেলটিকে একটি নোটিশ পাঠানো হয়েছিল এবং তাঁদেরকে ক্ষমা চাইতে বলা হয়েছিল। তবে চ্যানেলটি সে রাস্তায় হাঁটেনি। উলটে চ্যানেলটিই PEMRA এর কাছে নোটিশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছিল। এরপরেই চ্যানেলটিকে ৩০ দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন – ‘তাণ্ডব’ নিয়ে ফের বিতর্ক, ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতকারীদের জিভ ছিঁড়ে নিলে পুরস্কারের ঘোষণা কর্ণি সেনার

উল্লেখ্য, ওই অ্যাঙ্কর এমন শুধু একবার না। এর আগেও এক অনুষ্ঠানের সময় সামি ইব্রাহিম বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। একবার ফাওয়াদ চৌধুরীকে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনে অভিযুক্ত করেন ইব্রাহিম। এর পরে ফাওয়াদ চৌধুরী রাগে সাংবাদিককে চড়ও মারেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।