ফাইল ছবি

নাগপুর: ঘৃণা ও হিংসা ছড়ানোর ক্ষেত্রে পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও তফাৎ নেই আরএসএসের। এই ভাষাতেই আক্রমণ করল কংগ্রেস। এমনকি বিজেপিকে ব্রিটিশ শাসকের সঙ্গেও তুলনা করেন কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সিং সূরযেওয়ালা। তিনি বলেন, ”বিজেপিও ব্রিটিশদের মতই ডিভাইড অ্যান্ড রুল পলিসি চাপিয়ে দিচ্ছে।”

কিছুদিন আগেই বিজেপির তরফে বলা হয়, পাকিস্তান আর কংগ্রেস দু’জনেই নরেন্দ্র মোদীকে সরাতে চান। এরপরই এই আক্রমণ করল কংগ্রেস। সম্প্রতি বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ এমন মন্তব্যও করেন যে, কংগ্রেস পাকিস্তানের সঙ্গে মহাজোট তৈরি করছে। রাফায়েল ইস্যুতে রাহুল গান্ধী বারবার আক্রমণ করার পরিপ্রেক্ষিতেই একথা বলেন তিনি।

নাগপুরে কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির এল বৈঠক শেষে সূরযেওয়ালা সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, ‘আরএসএসের সঙ্গে গান্ধীর মতাদর্শের কোনও মিল নেই। গান্ধীজী আর কংগ্রেস যখন ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিল, তখন আরএসএস চুপ ছিল। আরএসএসের ভিত্তিই হল ঘৃণা ও বিদ্বেষ।’ তিনি আরও বলেন, ‘পাকিস্তান আর আরএসএসের কোনও তফাৎ নেই। কংগ্রেস আর ভারতীয়রা কখনই একে সমর্থন করে না।’

শুধু আরএসএস নয়। এদি তাঁর নিশানায় ছিল বিজেপিও। তিনি বলেন, বিজেপি হল মিথ্যা আর ঔদ্ধত্যে ভরা। তাঁর মতে, ৭১ বছর পরে ব্রিটিশদের জায়গা নিয়েছে বিজেপি। ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ব্রিটিশরা ভারের সম্পদ বিদেশে পাচার করে দিয়েছিল আর বিজেপি যারা ব্যাংক লুট করছে তাদের বিদেশে যেতে দিচ্ছে।’ বিজেপি শকুনির মত রাজনৈতিক খেলা খেলছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর মতে, ব্রিটিশরা পুলিশ এজেন্সিগুলোকে ব্যবহার করেছিল আর বিজেপি ইডি, সিবিআই-কে ব্যবহার করছে।