ইসলামাবাদ: লেফটেন্যান্ট জেনারেল অসমী মুনীরকে সরিয়ে ইন্টার সার্ভিস ইন্টালিজেন্স অর্থাৎ আইএসআই-এর প্রধানের দায়িত্বে এলেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল ফয়েজ হামিদ৷ কাশ্মীর সংক্রান্ত ইস্যুগুলি সম্পর্কে মুনীর অবগত থাকায় তাকে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে আনা হয়েছিল৷ আইএসআই প্রধানের দায়িত্বে আসার আগে মুনীর পাক সেনার উত্তর এলাকার কমান্ডার ছিলেন৷

তবে পুলওয়ামা হামলার পরে, সন্ত্রাসবাদ নিয়ে এক আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পড়ে পাকিস্তান৷ ক্রমস দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যায় ইমরান খানের সরকার এবং পাক সেনার৷ জইশ-ই-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহারকে গত মে মাসে নিরাপত্তা পরিষদ গ্লোবাল টেররিস্ট তকমা দেয়৷ প্রশ্ন উঠছে, পুলওয়ামার পরেই কী তাহলে চাপে পড়ে মুনীরকে সরানোর সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান, প্রশ্ন উঠছে৷

পড়ুন: আচমকা লাউঞ্জে মুখোমুখি মোদী-ইমরান

ফয়েজ হামিদ এর আগে আইএসআইয়ের আভ্যন্তরীণ বিভাগে কাজ করেছেন৷ ২০১৮ সালের ১০ জুলাই এক সংবাদ সম্মেলনে সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জেনারেল হামিদের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

তিনি জানান, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে হামিদের ডিপার্টমেন্ট যে ভূমিকা পালন করেছে তা উল্লেখযোগ্য৷ মনে করা হচ্ছে, জেনারেল হামিদের অভিজ্ঞতার ওপর ভরসা করেই তাঁকে এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে৷