অমৃতসর: মঙ্গলবার পাকিস্তানের বিভিন্ন জেলে বন্দি ৬০ জন ভারতীয়কে মুক্তি দিল পাকিস্তান৷ এদের মধ্যে ৫৫ জনই মৎস্যজীবী৷ ওয়াগা সীমান্ত দিয়ে এই ভারতীয়রা দেশে ফিরে আসেন৷

বন্দীদের মধ্যে মৎস্যজীবীরা পাকিস্তানের জলসীমায় ঢুকে মাছ ধরছিলেন বলে এঁদের আটক করা হয়৷ বাকি পাঁচজনের কাছে পাকিস্তানে থাকার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় গ্রেফতার করা হয়৷ এই পাঁচজনের কাছে ভিসাও ছিল না বলে অভিযোগ৷

পাকিস্তানি আদালতের দেওয়া নির্ধারিত সাজার চেয়েও বেশি সময় এই ভারতীয়রা জেলে কাটিয়েছেন৷ এদের মধ্যে কেউ কেউ ৩ মাসের সাজা পেয়ে জেলে কাটিয়ে ফেলেছে ১৮ মাসেরও বেশি৷

ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত৷

এর আগে, লোকসভা ভোটের মুখে ১০০ ভারতীয় মৎস্যজীবীকে মুক্তি দেয় পাকিস্তান৷ ভারতীয় মৎস্যজীবীদের মুক্তি দিয়ে পাকিস্তান নয়াদিল্লির সঙ্গে সুসম্পর্কের ইঙ্গিত দিতে চেয়েছে বলে মনে করছে কূটনৈতিক মহল৷

চলতি সপ্তাহে পাক জেলে বন্দি ১০০ ভারতীয় মৎসজীবীকে মুক্তি করার কথা ঘোষণা করে ইসলামাবাদ৷ তারপর ৮ এপ্রিল আটারি-ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে ভারতে আসেন ওই মৎস্যজীবীরা৷ তারপর অমৃতসর থেকে ট্রেনে ভদোদরা পৌঁছন সকলে৷

গত দেড় বছরের বেশি সময় ধরে করাচি জেলে বন্দি ছিলেন এই মৎস্যজীবীরা৷ দেশে ফিরে আসার পর সকলের চোখে খুশির জল৷ পাকিস্তানে জেলে থাকার অভিশপ্ত অভিজ্ঞতার কথা জানান৷ একবাক্যে সকলে জানান, ‘ভয়াবহ৷’

গত ৫ এপ্রিল পাকিস্তান ঘোষণা করে তাদের জেলে বন্দি ৩৬০ জন ভারতীয় মৎস্যজীবীদের তারা মুক্তি দেবে৷ সৌজন্যতা দেখাতেই এই সিদ্ধান্ত৷ চার দফায় মৎস্যজীবীদের ছাড়া হবে৷ প্রথম দফায় ১০০ জনকে ছাড়া হল৷