ইসলামাবাদ: প্রায় প্রতিদিনই পাকিস্তানে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ফের গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পাকিস্তানে করোনা আক্রান্ত হলেন ৬৮২৫ জন। এছাড়া মারা গিয়েছেন ৮০ জন। নতুন করে আক্রান্ত হওয়ার কারণে এখনও পর্যন্ত পাকিস্তানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১,৩৯,২৩০ জন৷ এমনটা জানা গিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে।

দেশে ক্রমবর্ধমান করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় চিন্তিত পাক প্রাশাসন। এছাড়া মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ২,৬৩২ জনে। যা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সে দেশের প্রশাসনিক কর্তারাও। তবে নতুন করে গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সাড়ে ছয় হাজারের বেশি মানুষজন আক্রান্ত হওয়াতে একদিনে সব থেকে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন পাকিস্তানে।

এছাড়া এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৫১,৭৩৫ জন। কিন্তু ক্রমেই বেহাল স্বাস্থ্য পরিকাঠামো সামনে আসাতে আতঙ্কিত সেখানকার সাধারণ মানুষ। এছাড়া পঞ্জাব এবং সিন্ধু প্রদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গিয়েছে ৫০ হাজার।

এর আগে পাক স্বাস্থ্য ব্যবস্থার অবনতি নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন অনেকেই। এমনকি বেশ কিছু চিকিৎসকের তরফে শোনা গিয়েছিল স্বাস্থ্য ব্যবস্থার বেহাল দশা। কিন্তু যে হারে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে তাতে উদ্বেগ সকলের মধ্যেই দেখা গিয়েছে।

ইতিমধ্যে পঞ্জাব, সিন্ধু-সহ একাধিক জায়গাতে আক্রান্ত লাফিয়ে বেড়েছে। সিন্ধুতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫১,৫১৮ জন। পঞ্জাবে আক্রান্তের সংখ্যা ৫২,৬০১ জন। এছাড়া রাজধানী ইসলামাবাদ-সহ বেশ কয়েক জায়গাতে ভীষণভাবে বেড়েছে আক্রান্তের হার। তবে এই পরস্থিতিতে কি করণীয় তা নিয়ে এখনও ধ্বন্দ্বে সকলে। একাধিক বিশেষজ্ঞ প্রতিষেধক তৈরি করার কাজে ব্যস্ত।তাছাড়া লক ডাউনের পক্ষেও সমর্থন জানিয়েছেন অনেকে। কিন্তু পাক অর্থনীতি এই করোনার জন্য কার্যত ধসে যাওয়ার কারণে লকডাউনের নিয়ম কার্যত শিথিল করেছে ইমরান খান।

প্রশ্ন অনেক: তৃতীয় পর্ব