করাচি: শেষ দু’বছর ধরে ক্রিকেটের পাঁচদিনের ফর্ম্যাটে সেভাবে সাফল্য ধরা দেয়নি। তবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে বড়সড় প্রভাব ফেলতে প্রস্তুত তারা। কার্যত হুঁশিয়ারির সুরে জানিয়ে রাখলেন পাক দলনায়ক সরফরাজ আহমেদ।

সম্প্রতি সরফরাজ জানিয়েছেন, ‘মিসবা উল-হক এবং ইউনিস খান টেস্ট ক্রিকেট থেকে সরে যাওয়ার পর গত দু’বছরে আমরা প্রত্যাশা অনুযায়ী নিজেদের মেলে ধরতে পারিনি ঠিকই। তবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে আমারা যে কোনও দলকে টেক্কা দিতে প্রস্তুত।’ আগামী নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে জোড়া টেস্ট ম্যাচ দিয়ে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে নিজেদের অভিযান শুরু করবে পাকিস্তান। এরপর ঘরের মাঠে রয়েছে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ।

সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে কমবেশি সাফল্য এলেও লাল বলের ক্রিকেটে পাকিস্তানের পারফরম্যান্স গ্রাফ ক্রমেই নিম্নমুখী। টেস্ট র‍্যাংকিংয়ে আপাতত ৭ নম্বরে থাকা তারা। এমন সময় টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে অভিযান শুরু করার আগে আশাবাদী সরফরাজ। তাঁর কথায়, ‘মিসবা ও ইউনিসের অবর্তমানে আমরা কম্বিনেশন এখনও তৈরি করে উঠতে পারিনি। তবে দলের বর্তমান ব্যাটসম্যানরা সেই অভাব পূরণ করতে পারে এবং সবরকম দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত।’

সরফরাজের সংযোজন, ‘আমাদের দলে শান মাসুদ, ইমাম উল-হক, আজহার আলি, আসাদ শাফিক, হ্যারিস সোহেল এবং বাবর আজমরা এখন অনেকটাই পরিণত। টেস্ট ক্রিকেটে ওরা ভালো ফল করতে প্রস্তুত। পাশাপাশি আজহার এবং আসাদের অভিজ্ঞতাও এই পর্যায়ের কাজে আসবে।’

তবে দলের বোলিং নিয়ে কিছুটা চিন্তায় দলনায়ক। দলে ইয়াসির শাহের পাশে দু’জন ভালোমানের স্পিনার চাইছেন পাক দলনায়ক। একইসঙ্গে ওয়াহাব রিয়াজ ও মহম্মদ আমের টেস্ট ক্রিকেট থেকে নিজেদের সরিয়ে নেওয়ায় দু’জন ভালোমানের পেস বোলারের খোঁজে তাঁর দিল। জানিয়েছেন সরফরাজ।