ইসলামাবাদ:  গত কয়েকদিন আগে ভারত সফরে এসেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের ভারত সফরে ভারতের সঙ্গে সামরিক চুক্তি হয়েছে। ভারত ও আমেরিকার মধ্যে তিনশ’ কোটি ডলারের সামরিক সরঞ্জাম চুক্তি সই হয়েছে। আমেরিকা থেকে অত্যাধুনি সামরিক সরঞ্জাম ক্রয় করবে ভারত। আর তাতে আতঙ্কিত পাকিস্তান।

পাকিস্তান বিদেশ দফতরের মুখপাত্র আইশা ফারুকি জানিয়েছেন, ভারত এবং আমেরিকার মধ্যে হওয়া সামরিক চুক্তি দুই দেশের উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতিকে আরও অস্থিতিশীল করে তুলবে। ভারতের কাছে আমেরিকার অত্যাধুনিক অস্ত্র-শস্ত্র বিক্রির কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করে এই আশংকা প্রকাশ করা হয়। ব্রিফিংয়ে তিনি আরও দাবি করেন, কেবল পাকিস্তানের প্রতি নয়, ভারত এবং আমেরিকার এই সিদ্ধান্তের কারণে এই অঞ্চলে অস্থিরতা আরও বাড়বে বলে মনে করছে পাকিস্তান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নয়াদিল্লি সফরের দ্বিতীয় ভারত ও আমেরিকার মধ্যে তিনশ’ কোটি ডলারের সামরিক সরঞ্জাম চুক্তি সই হয়েছে। আমেরিকা থেকে এসব সামরিক সরঞ্জাম ক্রয় করবে ভারত। এই চুক্তি অনুযায়ী ভারত আমেরিকার কাছ থেকে এমএইচ-৬০ রোমিও সিহক হেলিকপ্টার ও এএইচ-৬৪ই অ্যাপাচে হেলিকপ্টারসহ অত্যাধুনিক মার্কিন সামরিক সরঞ্জাম ক্রয় করবে।

এমএইচ-৬০ রোমিও সি-হক হেলিকপ্টার ও এএইচ-৬৪ই অ্যাপাচে হেলিকপ্টার যুদ্ধাস্ত্র বিশ্বে সেরা। বিশাল এই চুক্তির ফলে ভারত এবং আমেরিকার মধ্যে প্রতিরক্ষাক্ষেত্রে যৌথভাবে আরও শক্তিশালী জায়গায় পৌঁছবে বলে আশা পর্যবেক্ষকদের। আর তাতেই আতঙ্কিত ইসলামাবাদ। তাঁদের মতে, ভারতের এই অস্ত্র কেনাতে নাকি অস্থির পরিস্থিতি তৈরি হবে। যদিও এই বিষয়টি নিয়ে কিছু মন্তব্যে নারাজ ভারত।