ইসলামাবাদ: খুব কম দিনের জন্যই বিবহিত সম্পর্কে ছিলেন ইমরান খান ও রেহাম খান। ইমরান প্রধানমন্ত্রী হওয়ার অনেক আগেই বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাঁর এই দ্বিতীয় স্ত্রী’র সঙ্গে। আর তারপর থেকেই ইমরান খানের বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ সামনে এনেছেন রেহাম। তাঁর দলের বিরুদ্ধেও অভিযোগ তুলেছেন বিভিন্ন সময়ে। এবার আরও এক চাঞ্চল্যকর অভিযো সামনে আনলেন তিনি।

ট্যুইটারে রেহামের দাবি, অস্ট্রেলিয়া থেকে ফান্ড আসে ইমরানের কাছে। কত আসে, তা উল্লেখ না করলেও রেহাম লিখছেন, ‘আমেরিকা থেকে অবৈধভাবে টাকা পাওয়ার জন্য আমেরিকায় ইমরান খানের নামে দুট কোম্পানি রেজিস্টার হয়েছে।

তিনি আরও জানিয়েছেন বিদেশ থেকে আসা টাকা বেআইনি। এমনকি এই সংক্রান্ত প্রমাণও তিনি পাবলিক ডোমেনে প্রকাশ্যে আনবেন বলে জানিয়েছেন।

কাশ্মীর ইস্যুতে দেশের মধ্যেই কার্যত কোণঠাসা পাক প্রধানমন্ত্রী। এরই মধ্যে রেহামের এই বিস্ফোরক টুইট। স্বাভাবিকভাবেই এই ট্যুইট প্রকাশ্যে আসতেই রীতিমতো তোলপাড় শুরু হয়ে গিয়েছে পাকিস্তানে। রেহামের দাবি, ইনসাফ অস্ট্রেলিয়া আইএনসি নামে ইমরান খানের স্বাক্ষরিত একটি সংস্থা রয়েছে অস্ট্রেলিয়ায়। যার মাধ্যমে অবৈধ উপায়ে অর্থ সংগ্রহ করে থাকেন ইমরান।

এর আগে পুলওয়ামার হামলার পর ইমরান যে বয়ান দেন, তা পাক সেনার নির্দেশে বলেই উল্লেখ করেছিলেন করছিলেন রেহাম। তিনি বলেন, ইমরান নিজের বিবেকের সঙ্গে আপোস করে ক্ষমতায় এসেছে৷

তাঁর দাবি, ইমরান কে এই কথা বলতে চাপ দেওয়া হচ্ছে৷ ক্ষমতা বাঁচাতে সেনা যেমন বলছে দেখা যাচ্ছে তাদের কথা অনুকরন করছেন তিনি৷

মঙ্গলবার পাক প্রধানমন্ত্রী পুলওয়ামা হামলা নিয়ে বক্তব্য রাখার পরই প্রতিক্রিয়া দেন। ইমরান খান ওই বক্তব্যে দাবি করেন, যদি পুলওয়ামা হামলায় পাকিস্তানি কোনও ব্যক্তির জড়িত থাকার প্রমান মেলে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে৷