ইসলামাবাদ: কাশ্মীর থেকে স্পেশাল স্টেটাস তুলে নেওয়া হয়েছে। আর তারপর থেকে কাশ্মীর কতটা খারাপ আছে, সেটাই বারবার তুলে ধরার চেষ্টা করে যাচ্ছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের সেই দাবি ধোপে না টিকলেও চেষ্টা চালিয়েই যাচ্ছে ইসলামাবাদ। এবার অধিকৃত কাশ্মীরে ছুটছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে অধিকৃত কাশ্মীরে যাবেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। বুধবার মুজফফরাবাদের অ্যাসেম্বলিতে ভাষণ দিবেন তিনি। পাক সংবাদমাধ্য সূত্রে এই খবর পাওয়া গিয়েছে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ১৪ অগস্ট কাশ্মীরের প্রতি সহানুভূতি জানিয়ে স্বাধীনতা দিবস পালনের যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল, সেই উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বুধবার সেখানে সফর করবেন। সেদিন অ্যাসেম্বলিতে দাঁড়িয়ে কাশ্মীরের সমস্যা নিয়েই নাকি কথা বলবেন তিনি।

কাশ্মীর থেকে স্পেশা স্টেটাস তুলে নেওয়ার পর পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা কমিটি ১৪ আগস্ট দেশের স্বাধীনতা দিবসে ‘কাশ্মীর সংহতি দিবস’ পালনের সিদ্ধান্ত নেয়। এছাড়া ১৫ আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবসকে ‘কালো দিবস’ হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্তও নিয়েছে পাকিস্তান।

গত ৫ অগস্ট কাশ্মীর থেকে স্পেশাল স্টেটাস বাতিল করে দিয়েছে মোদী সরকার। একই সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরকে ভেঙে দুটি অঞ্চল কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গঠন করা হয়েছে।

অন্যদিকে, কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্ততা নিয়ে আরও একবার নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই বিষয়ে ভারতের এক কূটনীতিক সোমবার মন্তব্য করেছেন, ”কাশ্মীর নিয়ে ট্রাম্পের মধ্যস্ততার ব্যাপারটি অস্তিত্ব হারিয়েছে।”