ইসলামাবাদ: গত ৫ অগস্ট কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। পুনর্জন্ম লাভ করেছে ভূস্বর্গ। যার কারণে ভারতকে নানাভাবে বিপাকে ফেলার ফন্দি-ফিকির করে চলেছে পাক সরকার।

বিভিন্ন পণ্য রফতানি বন্ধ করে দেওয়া থেকে শুরু করে যাতায়াত পরিষেবার বিভিন্ন দিকও বন্ধ করে দেওয়ার মাধ্যমে ভারতকে প্যাঁচে ফেলতে চাইছে পাকিস্তান। তবে এখানেই খামতি নেই, এবার সরাসরি রণহুঙ্কার ছাড়লেন পাক প্রধানমন্ত্রী। বললেন স্বাধীনতা পেতে এবার যুদ্ধের জন্যও প্রস্তুত তিনি।

বুধবার পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে অধিকৃত কাশ্মিরে গিয়ে বক্তব্য রাখেন পাক প্রধানমন্ত্রী। সেখানে ইমরান খান সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ভারত সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধে অবতীর্ণ হবেন তিনি। কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। যার জেরেই শেষমেশ এই সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে পাক সরকার। সম্প্রতি এই ইস্যুতে এক বিস্ফোরক মন্তব্যও করেছেন তিনি।

জানিয়েছেন, কাশ্মীরের স্বাধীনতা ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য দেশের জনগণ প্রস্তুত। এমনকী রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘের আদর্শ নিয়েও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তিনি। দেশের ইসলাম সম্প্রদায়ের মানুষকে বঞ্চিত করা হচ্ছে বলেও উস্কানি দিয়েছেন। কাশ্মীর ইস্যুতে কেন্দ্রের পদক্ষেপ নিয়ে সরকারকে কটাক্ষ করেছেন বিশেষভাবে। কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি উল্লেখ করে বলেছেন, এটা উপত্যকার পক্ষেও কঠিন পরিস্থিতি।

তিনি এও বলেছেন, “আমরা এই মুহূর্তে মানবিক সংকটের মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছি এবং এই যে সিদ্ধান্তটি চাপানো হয়েছে তার দ্বারা সৃষ্ট নৃশংসতা সম্পর্কে সত্যিই উদ্বিগ্ন।”

ভারতের এই সিদ্ধান্তকে ‘কৌশলীকৃত ভুল’ আখ্যা দিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, তিনি এবার তার তুরুপের তাস খেলবেন। যা ভারতের জন্য খুব ভয়ঙ্কর হবে।