ইসলামাবাদঃ  বিশাল তেল এবং গ্যাসের খোঁজ পেতে চলেছে পাকিস্তান! এমনটাই আভাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি জানিয়েছেন, পাকিস্তানের উপকূলীয় এলাকায় এক্সন-মোবিল নেতৃত্বে কনসোর্টিয়ামের দায়িত্বে যে মাটি খোঁড়ার কাজ চলছে বিশাল ভান্ডারের আশায় তা যেন সত্য হয়। আর সে কারণে ভগবানের কাছে প্রার্থনাও জানিয়েছেন পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী।

যদিও এই খনন প্রক্রিয়া এরই মধ্যে তিন সপ্তাহ দেরি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইমরান খান। একই সঙ্গে তিনি আরও বলেন, অনুসন্ধানে জড়িত কোম্পানিগুলো যে আভাস দিচ্ছে তাতে পাকিস্তানের জলসীমার মধ্যে তেল-গ্যাসের বিশাল মজুদ পাওয়া যাবে বলেই আশা করা হচ্ছে। আর প্রত্যাশা সত্য হলে পাকিস্তানের আমূল পরিবর্তন ঘটবে বলেও জানান তিনি।

জ্বালানি তেলের মজুদ পাওয়া গেলে সব অর্থনৈতিক দুর্দশার ইতি ঘটবে এবং পাকিস্তানকে আর কখনও পিছনে ফিরে তাকাতে হবে না বলেও আশাবাদী তিনি। যদিও এর থেকে বেশি কিছু জানাতে চাননি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। এমনকি এই কাজের সঙ্গে জড়িত এক্সন-মোবিল এবং আন্তর্জাতিক তেল কোম্পানি ইএনআইও এ নিয়ে কিছু বলে নি।

চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে কেকরা-১ নামের এলাকায় সাগরের ২৩০ কিলোমিটার গভীরে খনন প্রক্রিয়া চালানো হচ্ছে। অতি-গভীর কুপ খননের মধ্য নিয়ে তেল-গ্যাসের মজুদ খুঁজে পাওয়ার বিষয়ে এখনও কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে কিছুই বলা হয় নি। প্রায় এক দশক অনুপস্থিত থাকার পর গত বছর পাকিস্তানে ফিরেছে এক্সন-মোবিল। গত বছর চালানো সমীক্ষায় ধারণা করা হয়েছে যে পাকিস্তানের জলসীমার মধ্যে তেলের বিশাল মজুদ রয়েছে।