ইসলামাবাদ: ২০১২ সালে মালালা ইউসুফজাইয়ের ওপর যে তালিবানি হামলা হয় তা একটি পূর্বপরিকল্পিত নাটক বলে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন এক মহিলা পাক সাংসদ৷ ইমরান খানের দল পাকিস্তানের তেহরিক-এ-ইনসাফের সাংসদ মুসররত আহমদজেব একটি পাক সংবাদপত্রে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, মালার ওপর হওয়া হামলা পূর্ব পরিকল্পিত৷ শুধু তাই নয়, গুলি মালার মাথায় লেগেছিল কি না সেই নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেন তিনি৷

আরও পড়ুন: কনসার্ট চলাকালীন প্রবল বিস্ফোরণ ম্যাঞ্চেস্টারে, মৃত ১৯

মুসররত ট্যুইট করে বলেন, মালালার মাথায় গুলি করা হলেও, সিটি স্ক্যানে কোনও গুলি পাওয়া যায়নি৷ আবার পেশোয়ারের হাসপাতালে ভর্তি হোয়ার পরেই আবার মালালার মাথায় গুলি পাওয়া যায়৷ এখানেই শেষ নয়৷ তিনি আরও বলেন, মালালার চিকিৎসকদের সরকার জমি দিয়েছে৷

পাক সাংসদের এই বক্তব্যকে ঘিরে ইতোমধ্যেই সমালোচনা ঝড় শুরু হয়ে গিয়েছে৷ এ বিষয়ে তেহরিক-এ-ইনসাফের প্রধান শফকত মেহমুদ বলেন, নিয়মশৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তাঁদের দল এর আগেই মুসররতকে আলাদা করে দেওয়া হয়েছে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।