নয়াদিল্লি: কাশ্মীরে পোস্টপেড মোবাইল পরিষেবা চালু হওয়ার পরই গোয়েন্দা সংস্থা সূত্রে খবর আসে পাকিস্তানি সেনা পাস্তো এবং আফগানিস্তানের জঙ্গিদের বর্ডার পেরিয়ে কাশ্মীরে ঢোকার জন্য নিয়োগ করছে।

কাশ্মীরের পরিস্থিতির উপর গোয়েন্দাদের টানা নজরদারিতে উঠে এসেছে যে, কাশ্মীরি নন এবং উর্দুভাষী নন এমন জঙ্গিদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। সেই ঘটনাই শেষ কিছুদিনে আরও বৃদ্ধি পেয়েছে বলেই খবর পাওয়া গিয়েছে।

তবে শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, পাকিস্তানের সেনারা আফগান অরিজিন এবং পাস্তোতে কথা বলতে পারা জঙ্গিদের জম্মু ও কাশ্মীরে নিয়োগ করছে। সম্প্রতি পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের খাইবার পখতুনওয়া শহরে একতি বৈঠক হয় যেখানে পাকিস্তান সেনা এবং আইএসআই দ্বারা নিয়ন্ত্রিত জঙ্গিদের প্রধানরা তাঁদের ক্যাডারদের প্রস্তুত করছে কাশ্মীর উপত্যকায় হামলার জন্য।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছে, নিরাপত্তা সংস্থাগুলি পাস্তো-ভাষী এবং আফগানি জঙ্গিদের জম্মু ও কাশ্মীরে উপস্থিতির বিষয়ে তথ্য দিতে থাকবে। কাশ্মীরে মোবাইল পরিষেবা স্বাভাবিক হওয়ার পর আইএসআই আরও বেশি সুযোগ নিচ্ছে বলে মনে করছে গোয়েন্দা সংস্থাগুলি।

ইতিমধ্যে, পাকিস্তানি জঙ্গিরা তাঁদের তান্ডব চালিয়ে যাচ্ছে বলেই জানা যাচ্ছে। সম্প্রতি কাশ্মীরের সোপিয়ান জেলাতে দু’জন ফল ব্যবসায়ী জঙ্গিদের গুলিতে মারা গিয়েছেন। এর আগে, অনন্তনাগে তিন লস্কর জঙ্গিকে খতম করে দিয়েছে ভারতীয় সেনা।