ইসলামাবাদ: পুলওয়ামা হামলা প্রসঙ্গে পাকিস্তানে এক নেতার মন্তব্য, ‘হিন্দুরা আমাদের শত্রু।’

বুবার তাঁর এই মন্তব্যের পরই ওয়াক আউট করে অ্যাসেম্বলি থেকে বেরিয়ে যায় সেখানকার বিরোধী দলের নেতারা। তাঁর মন্তব্যের সমালোচনাও করেছেন অনেকে।

পিপিপি নেতা শের আজম ওয়াজির এদিন অ্যাসেম্বলিতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, ‘হিন্দুরা আমাদের শত্রু।’ যদিও পরে নিজের বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন ওয়াজির। তিনি বলেন, ‘হিন্দু’ নয় আসলে ‘হিন্দুস্তান’ বলতে চেয়েছিলেন তিনি।

পরে অ্যাসেম্বলিতে দুই দলের সদস্যদেরই ফিরিয়ে আনা হয়। খাইবার পাখতুনখাওয়ার ওই অ্যাসেম্বলিতে তিন হিন্দু সদস্য রয়েছে।

এর আগে পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা ও তার পরিপ্রেক্ষিতে তীব্র উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার আবহে সাম্প্রদায়িক মন্তব্য করেছিলেন পাক পাঞ্জাব প্রদেশের সংস্কৃতিমন্ত্রী৷ সেই জেরে পাকিস্তানিদের মধ্যে ক্ষোভ সঞ্চার হয়৷ তুমুল বিতর্কের মাঝে অবশেষে পদত্যাগ করতেই হল মন্ত্রী ফয়জল হাসান চোহানকে৷ তিনি প্রাদেশিক আইনসভার মুখ্যমন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়ে পদত্যাগ করলেন৷

ক্ষমতাসীন দল পাকিস্তান তেহরিক ই ইনসাফ (পিটিআই) দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতা তিনি৷ দেশের পাশাপাশি পাক পাঞ্জাব প্রদেশেও পিটিআই ক্ষমতায়৷ আর সেখানকার তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রীর পদে থেকে বিদ্বেষপূর্ণ মন্তব্য করেছিলেন ফয়জল হাসান৷ বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ হন খোদ প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ #SackFayazChohan এই হ্যাসট্যাগে রাশি রাশি অভিযোগ জমা পড়ে মন্ত্রী ফয়জলের বিরুদ্ধে৷ এরপরেই কড়া ভূমিকা নেন ইমরান৷