রাওয়ালপিন্ডি: আর মাত্র হাতে গোনা কয়েকদিন বাদেই নির্বাচন পাকিস্তানে। তার আগে আইএসআই-বিরোধী স্লোগান উঠল খাস পাক সেনা হেডকোয়ার্টারের সামনে। নওয়াজ শরিফের দল পিএমএল (এন)-এর সমর্থকদের গলায় শোনা যাচ্ছে ‘আইএসআই মুর্দাবাদ’।

এএনআই-এর প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, রাওয়ালপিন্ডিতে পাকিস্তানের সেনা হেডকোয়ার্টারের সামনে জড় হয়েছে বহু পিএমএলক সমর্থক। তারা ”আইএসআই মুর্দাবাদ” বলে আওয়াজ তুলেছে। পাশাপাশি তাদের কণ্ঠে আরও শোনা যাচ্ছে, ”ইয়ে যো দেশাদ গারদি হ্যায়, উস্কে পিছে ওয়ারদি হ্যায়।” অর্থাৎ, দেশের সন্ত্রাসের পিছনে রয়েছে সেনাবাহিনী।

বিক্ষোভকারীদের দাবি, আগামী ২৫ জুলাই দেশে যে নির্বাচন হতে চলেছে, তা আসলে পাকিস্তানের এই গুপ্তচর সংস্থার পরিকল্পনামাফিকই হবে। ২১ জুলাই ওই দলেরই এক প্রার্থী হানিফ আব্বাসিকে ড্রাগ পাচারের মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার পর নওয়াজের দলের বহু সমর্থক বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।

বালোচ ন্যাশনাল মুভমেন্টের প্রেসিডেন্ট ফাজর বালোচ ট্যুইট করে জানান, ”পাকিস্তানের রাস্তায় সাধারণ মানুষ আইএসআই-এর শেষ দেখতে চাইছে। আসলে দেশ জুড়ে পাক সেনা ও আইএসআই-এর দীর্ঘ ইতিহাসের প্রভাবেই এই বহিঃপ্রকাশ।” দেশের প্রধান বিচারপতিকে চাপ দেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন তিনি আইএসআই-এর বিরুদ্ধে। নওয়াজ শরিফের মামলা সহ একাধিক মামলায় গুপ্তচর সংস্থার মনোমত রায় দেওয়া হচ্ছে বলেই মনে করেন তিনি।

বর্তমানে রাওয়ালপিণ্ডির আদিয়ালা জেলে রয়েছেন নওয়াজ শরিফ ও তাঁর মেয়ে মরিয়ম শরিফ।