ফাইল ছবি

ইসলামাবাদ: বিশ্ববাসীর ঘুম একলহমায় কেড়ে নেওয়া ভাইরাসের নাম করোনা। ইতিমধ্যে সারা পৃথিবীতে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ-এ। রেহাই মেলেনি পড়শি দেশ পাকিস্তানেরও। শনিবারের রিপোর্ট অনুযায়ী পাকিস্তানে আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁয়েছে ১৫০০। মৃতের সংখ্যা ১২।

পাকিস্তানে ২৬ ফেব্রুয়ারি প্রথম করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া যায়। এরপর মাত্র ৩১ দিনের মাথায় সংখ্যাটা দাঁড়িয়েছে ১৫০০ তে। যা দেখে আঁতকে উঠছেন বিশেষজ্ঞরা।

দক্ষিণ এশিয়ায় পাকিস্তানে আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বশি। তবুও এখনও দেশ লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেয়নি ইমরান খানের সরকার। আগুন নিয়ে খেলছে পাক প্রশাসন। সে দেশের কয়েকটি এলাকায় আংশিক ভাবে লকডাউন চালু হলেও দেশজুড়ে লকডাউনে প্রবল অনীহা ও গড়িমসি দেখাচ্ছে ইমরান খানের সরকার। শুধুমাত্র পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশেই ৪৬৯ জন মারণ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বলে জানা গিয়েছে।

বর্তমানে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লক্ষ ৪০ হাজার। মৃতের সংখ্যা প্রায় ৩০ হাজার। ইউরোপের বহু দেশে নতুন করে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। মারাত্মক অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে ইতালি ও স্পেন। বিশ্বের মোট ১৮০ টিরও বেশি দেশে ছড়িয়েছে এই ভাইরাস।

অন্যদিকে শনিবার রাত পর্যন্ত ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১০০০। স্বাস্থ্যমন্ত্রক এই তথ্য জানালেও বেসরকারি মতে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আরো বেশি।

দেশের মধ্যে মহারাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্তের হদিস মিলেছে শনিবার রাত পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে ১৮৬ জনের শরীরে কারণ আর সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সংক্রমিত হওয়ার নিরিখে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কেরালা। শনিবার রাত পর্যন্ত কেরালায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৮২।