ইসলামাবাদ: করোনা আতঙ্কে কাঁপছে সারা বিশ্ব। চিন সহ একাধিক দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই মারণ ভাইরাস। এমনকি ভারতেও থাবা বসিয়েছে করোনা। এবার করোনা আতঙ্কে ব্যাপক আতঙ্কিত হয়ে ইরানের সঙ্গে বর্ডার বন্ধ করে দিল পাকিস্তান। রবিবার পাক প্রশাসনের তরফে এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে।

পাক প্রশাসনের উচ্চ পদস্থ আধিকারিক আয়েশা জেহরি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ইরানে করোনা ভাইরাসের কারণেই পাকিস্তানের তরফে বর্ডার বন্ধ রাখার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

রবিবার ইরানের রাজধানী তেহরান থেকে জানানো হয়, ইরানে মোট ৪৩ জন এই ভাইরাসের খপ্পরে আক্রান্ত। ইতিমধ্যেই ৮ জনের এই ভাইরাসের কারণে মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। আর এই ঘোষণার পরেই তাঁদের সঙ্গে বর্ডার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। তবে শুধু যে পাকিস্তান এমন পদক্ষেপ নিয়েছে তা নিয়, একই ভাবে বর্ডার বন্ধ করেছে তুরস্কও। তুরস্কের বর্ডার বন্ধের পরেই পাকিস্তানের তরফেও সেই একই পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়।

অন্যদিকে, করোনাভাইরাসকে চিনের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সংকট বলে আখ্যা দিয়েছেন চিনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং। রবিবার চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেন, ১৯৪৯-এ কমিউনিস্ট চায়না প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে এটাই সব থেকে বড় ‘হেলথ এমার্জেন্সি’। তিনি বলেন, আমাদের এই ভুলগুলি সব ঠিক করতে হবে। চিনা প্রেসিডেন্ট অবস্থার গুরুত্ব স্বীকার করে নিয়ে বলেন, ‘এটা আমাদের জন্য কঠিন এবং একই সঙ্গে চরম পরীক্ষার সময়।’

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই রবিবারের সংখ্যা অনুযায়ী এই ভাইরাসের কবলে পড়েছেন ৭৬ হাজার ৯৩৬ জন। চিনের পর বিশ্বের অন্যান্য দেশেও ক্রমেই ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। মৃতের ও আক্রান্তের শঙ্কায় আশঙ্কিত হয়ে ‘হু’ (ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন)-এর তরফেও সতর্কতা জারি করা হয়েছে।