চণ্ডীগড়: পুলওয়ামা হামলার পর থেকে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিভিন্নভাবে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছে দেশের মানুষ। পাকিস্তানকে অপদস্থ করতে এক নতুন উপায় বেছে নিয়েছিল পঞ্জাবের একটি ক্লাব।

পাকিস্তানের একটি বাসকে পাক পতাকার উপর দিয়ে যেতে বাধ্য করা হয়েছে। লাহোর থেকে দিল্লিগামী বাসটি জিটি রোডের উপর দিয়ে যাচ্ছিল। সেখানেই বিছিয়ে দেওয়া হয় ওই পতাকা। বুধবার এই উদ্যোগ নেয় পঞ্জাবের একটি স্থানীয় ক্লাব।

‘Idiot Club’ নামে ওই ক্লাবের সদস্যরা রাস্তায় বিছিয়ে দিয়েছিল পাকিস্তানের এক বড় পতাকার রেপ্লিকা। আটারি বর্ডার পেরিয়ে ওই রাস্তা দিয়েই আসতে হয় বাসটিকে। রাস্তায় আসা সব গাড়িকেই পতাকার উপর দিয়ে যেতে হয়। বাসটিও পতাকা দেখে থামেনি। উপর দিয়ে চালিয়ে নিয়ে যায়।

ক্লাবের প্রেসিডেন্ট রাজিন্দর রিখি বলেন, এইভাবেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় ডিএসপি, কিন্তু তাঁরা বিষয়টাতে কোনও হস্তক্ষেপ করেননি।

এদিকে, ছত্তিসগড়ের জগদলপুরে খাবারের দোকান রয়েছে অঞ্জল সিং-এর। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তিনিও প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ। তাই তাঁর দোকানে দাঁড়িয়ে ‘পাকিস্তান মুর্দাবাদ’ বললেই খাবারে পাওয়া যাচ্ছে বিশেষ ছাড়।

তাঁর দোকানে গিয়ে চীৎকার করে বলতে হবে, ‘পাকিস্তান মুর্দাবাদ’। তাহলেই চিকেনের লেগ পিসে ১০ টাকা করে ছাড় দেওয়া হবে। পুলওয়ামা হামলায় ৪০ জন জওয়ান শহিদ হওয়ার পর থেকেই এই বিশেষ ছাড় দিতে শুরু করেছেন এই ব্যবসায়ী।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয় লক্ষ্য করে হামলা করে জঙ্গিরা। আত্মঘাতী বিস্ফোরণে উড়ে যায় একটা গোটা বাস। শহিদ হন ৪০ জন জওয়ান। দিন দুয়েকের মধ্যেই বদলা নিতে শুরু হয় এনকাউন্টার। সেনাবাহিনী খতম করেছে হামলার অন্যতম মাস্টারমাইন্ড কামরানকে।