লাহোর: বিশ্বকাপের দামামা বেজে গিয়েছে৷ ৩০ মে থেকে ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের মাটিতে বসছে পঞ্চাশ ওভারের ক্রিকেট বিশ্বকাপের আসর৷ প্রথম দল হিসেবে এবার বিশ্বকাপ খেলতে ইংল্যান্ডের বিমান ধরল পাকিস্তান৷

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে ৫ মে থেকে ইংল্যান্ডের মাটিতে মর্গ্যানদের বিরুদ্ধে ১ টি টি-টোয়েন্টি ও ৫ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজ খেলবে সরফরাজরা৷ সেই টুর্নামেন্টের জন্যই রওনা দিল পাকিস্তান৷ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলে বিশ্বকাপ মোডে ঢুকে পড়বে সরফরাজ-ফাকহাররা৷ এরপর দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে ৩১ মে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে মাঠে নামবে পাকিস্তান৷

আরও পড়ুন- কোহলির দলে অধিকাংশ ক্রিকেটারের কেন গালভর্তি দাড়ি, প্রশ্ন তুললেন বর্ষীয়ান অভিনেতা

বিশ্বকাপে এবার নিজেদের আন্ডারডগ হিসেবে দেখতে চায় পাকিস্তান৷ বিশ্বকাপের জন্য ইংল্যান্ডের উড়ান ধরার আগে পাক দলের অধিনায়ক সরফরাজ জানান, ‘মাথার উপর ফেভারিট তকমা থাকলে, চাপে পড়তে হত৷ তার চেয়ে আন্ডারডগ হিসেবেই এবার বিশ্বকাপে আমরা অংশ নিতে চলেছি৷ সেটাই আমাদের চাপমুক্ত রাখবে৷’

সেই সঙ্গে সরফরাজ আরও জুড়েছেন, ‘ টুর্নামেন্টের গ্রুপ পর্বে ৯টি ম্যাচ খেলতে হবে৷ বিশ্বকাপের প্রতিটি ম্যাচকেই তাই আমরা ভারতের বিরুদ্ধে ম্যাচ হিসেবে দেখছি৷’

আরও পড়ুন- বিশ্বকাপের স্বপ্ন সত্যি হল বিজয়ের

সরফরাজের গলায় আত্মবিশ্বাসের সুর থাকলেও বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের পরিসংখ্যান অবশ্য অন্য কথা বলছে৷ এখনও পর্যন্ত পঞ্চাশ ওভারের বিশ্বকাপে ৬ বার ভারতের মুখোমুখি হয়েছে পাকিস্তান৷ ছয় ম্যাচে ভারতের কাছে হার পাকিস্তানের৷ ইংল্যান্ডের মাটিতে এবার বিশ্বকাপে সপ্তমবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলতে নামবে ভারত৷ ১৬ জুন ম্যাঞ্চেস্টারে সেই ম্যাচ নিয়ে ইতিমধ্যেই ক্রিকেট দুনিয়ায় পারদ চড়তে শুরু করেছে৷

উল্লেখ্য আইসিসি’র আন্তজার্তিক কোনও টুর্নামেন্টে, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ২০১৭ তে শেষবার ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল সরফরাজের পাকিস্তান৷