শ্রীনগর: রবিবার রাতভর এলওসিতে লাগাতার হামলা চালিয়েছে পাকিস্তান। সারারাত ধরেই অবিরাম চলেছে মর্টার শেলিং। জম্মু কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলায় এই হপাক হানায় আহত হয়েছেন ২৫ বছরের এক ভারতীয় যুবক। রবিবার এক অধিকর্তার তরফে একথা জানানো হয়েছে।

সেনার তরফে জানানো হয়েছে, শনিবার রাত ১১ টা নাগাদ মেন্ধর এবং বালাকোট সেক্টরে শেলিং শুরু করে পাক সেনা, রাতভর শেলিংয়ের পর রবিবার ভোর রাত ৪ টে ৩০ নাগাদ এই শেলিং বন্ধ হয়।

মহম্মদ ইয়াজির নামক ২৫ বছরের ওই যুবক বাড়ির কাছেই একটি মর্টার ফেটে স্পিলিন্টারের ঘায়ে আহত হন। রবিবার ভোর রাতে এই ঘটনা ঘটে।

সেনার তরফে জানানো হয়েছে, বর্ডার এলাকার কাছাকাছি প্রায় ছটি গ্রাম লক্ষ্য করে রাতভর গোলাগুলি চলেছে। যার জেরে দুটি বাড়ির আংশিক ক্ষতি হয়েছে। মেন্ধর সেক্টরে শেলিং-এর মাত্রা বেশি ছিল।

জানা গিয়েছে, ভারতীয় বাহিনীও এই পাক হামলার খোলা হাতে জবাব দিয়েছে। তবে পাকিস্তানের কতটা কি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, সে সম্পর্কে তাৎক্ষণিক ভাবে কিছু জানা যায়নি।

ভারতীয় সেনার তরফে জানানো হয়েছে, রাতভর চলা এই গোলাগুলির ফলে এলাকাবাসীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। অনেকেই বাঙ্কার ও অন্যন্য নিরাপদ আশ্রয়ে রাত কাটিয়েছেন।

সেনার এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, পাকিস্তান সেনাবাহিনী বালাকোট এবং মেন্দার সেক্টরে এলওসি বরাবর গুলি চালিয়ে ও ম্ররটার শেলিং করে অবিরাম যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করছে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প