করাচি: শুক্রবার পাকিস্তানের জিন্ন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের কাছে ভেঙে পড়েছে করাচিগামী একটি বিমান। সেই বিমানে যাত্রী ও ক্রু মিলিয়ে অন্তত ১০০ জন ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত সরকারের তরফ থেকে হতাহতের সংখ্যা জানানো হয়নি। তবে, মনে করা হচ্ছে বহু মৃত্যুর আশঙ্কা রয়েছে।

জানা যাচ্ছে, ওই বিমানে থাকা এক মডেলেরও মৃত্যু হয়েছে। জারা আবিদ নামে ওই মডেলের মৃত্যুর খবর ইতিমধ্যেই অনেকে জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাঁর বন্ধু ও শুভাকাঙ্খীরা তাঁর মৃত্যুর খবরে শোকাহত।

বিমান ভেঙে পড়ার খবর সামনে আসার পরই বিমানের যাত্রী তালিকা প্রকাশ করা হয়। আর তাতে নাম ছিল জারার। এরপরই তাঁর বন্ধুবান্ধরা সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন। যদিও শোনা যাচ্ছে যে ওই বিমানের কোনও কোনও যাত্রী বেঁচে থাকতে পারেন। এই খবর জানার পর অনেকেই ট্যুইটগুলো ডিলিট করে দেন।

যদিও পাক সাংবাদিক জাইন খান জানান যে জারা আবিদ আর নেই, এ খবর নিশ্চিত। জারার পরিবারলে সমবেদনা জানান তিনি।

জানা যাচ্ছে পাকিস্তানের একটি পোশাকের ব্র্যান্ড ‘সানা শাফিনাজ’-এর একটি শো করছিলেন ওই মডেল। কিন্তু তাঁর আত্মীয়ের মৃত্যুর খবরে তাঁকে লাহোর যেতে হয়েছিল। সেখান থেকেই ফিরছিলেন তিনি।

মেহরিন জাহরা-মালিক নামে আরও এক সাংবাদিকও এই খবর নিশ্চিত করেছেন।

শুক্রবার করাচিতে ভেঙে পড়ে ওই বিমান। বিমানে ৯০ জন যাত্রী ও ৮ জন ক্রু ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। কোনও এক জনবসতিপূর্ণ এলাকায় ভেঙে পড়ে বিমানটি। সেখান থেকে হু হু করে ধোঁয়া বের হতে দেখা যায়।

পিআইএ-র মুখপাত্র আব্দুল সাত্তার জানিয়েছেন, Flight 8303 বিমানটি লাহোর থেকে করাচির দিকে উড়ে যাচ্ছিল। করাচিতে অবতরণ করার ঠিক আগেই ভেঙে পড়ে সেটি।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV