ইসলামাবাদ: বিশ্বজুড়ে চলছে করোনা মহামারী। ইতিমধ্যে একাধিক দেশ কার্যত স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে এই করোনা ভাইরাসের কারণে। ভাইরাসের আঁচ গিয়ে পরেছে পাকিস্তানেও। সে দেশেও ক্রমেই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা তারই মাঝে পাক মন্ত্রী ফিরদৌস আশিকের মন্তব্য নিয়ে উঠেছে ব্যপক সমালচনার ঝড়। প্রথম বিশ্বের একাধিক দেশ এই ভাইরসের প্রতিষেধক তৈরিতে ব্যস্ত। তার মাঝে এই মন্ত্রীর করা মন্তব্য নিয়ে শুরু হয়েছে ট্রোল।

এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি সকলকে পা ঢেকে রাখার পরামর্শ দেন। তাঁর দাবি, নয়তো করোনা নীচ দিয়ে শরীরে প্রবেশ করতে পারে। একজন মন্ত্রী হয়ে কি ভাবে এই জাতীয় মন্তব্য করতে পারে সেই নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। পাশপাশি প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে তার শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়েও। একাধিক দেশ যখন এই ভাইরাস মহামারিতে জর্জরিত সেখানে দাড়িয়ে এই জাতীয় কথা কেউ কিভাবে বলতে পারে তা নিয়ে শুরু হয়েছে তীব্র সমালোচনা।

তার এই মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড হতেই চরম হাসির রোল দেখা যায়। অনেকে সরাসরি কটাক্ষ করাও শুরু করেছিলেন। তবে তিনি এও জানিয়েছেন এই মুহূর্তে সকলকে একসঙ্গে কাজ করা দরকার। এই ভাইরাস রুখতে তাই গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া অনেকেই ইতিমধ্যে মিম বানাতেও শুরু করেছেন তার এই মন্তব্য নিয়ে। ইতিমধ্যে পাকিস্তানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমে বাড়তে শুরু করেছে। প্রশাসনের তরফে তাই রাখা হচ্ছে করা সতর্কতা।

পাকিস্তানে সব থেকে বেশি আক্রান্ত বালুচিস্তান, খাইবার পাখতুনখোয়া সহ পঞ্জাব প্রদেশে। এছাড়া রাজধানী ইসলামাবাদ, সিন্দু প্রদেশ, পঞ্জাব সহ একাধিক জায়গাতে মিলেছে সংক্রমণ। স্বাস্থ্য কর্মীদের তরফে চলছে নজরদারি এবং পরীক্ষা। এছাড়া ইতিমধ্যে জারি হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। তবে বেশ কিছু জায়গাতে নিষেধাজ্ঞা তোলা হলেও থাকছে নজরদারি। তারই মাঝে এই মন্ত্রীর মন্তব্যর ফলে শুরু হয়েছে হাসাহাসি।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।