মুম্বই: অবশেষে প্রকাশ্যে এল সঞ্জয় লীলা বনসালীর বহু প্রতীক্ষিত ছবি ‘পদ্মাবত্’ মুক্তির দিন৷ পদ্মাবতের সহকারী প্রযোজক জানিয়েছেন, ‘আগামী সপ্তাহের মধ্যে রিলিজ ডেট ঘোষণা করা হবে।’ তার আগে মার্কেটিং শুরু হয়ে যাবে বলেও জানানো হয়েছে৷ যদিও আনুষ্ঠানিকভাবে ছবির মুক্তির দিন ঘোষণা করা হয়নি, তবে সূত্রের খবর, সামনে ছুটির মরসুম বলতে প্রজাতন্ত্র দিবস৷ ফলে ‘পদ্মাবত’ মুক্তি পাওয়ার প্রবল সম্ভাবনা ওই সময়েই৷ অর্থাৎ প্রজাতন্ত্র দিবসের আগের দিন ২৫ জানুয়ারি৷

বহু প্রতীক্ষিত এবং চর্চিত এই ছবির মুক্তির দিন নিয়ে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে নয়া জল্পনা৷ কারণ, ওইদিনই অক্ষয় কুমারের ‘প্যাডমান’ এবং নীরজ পান্ডের ‘আইয়ারি’ও মুক্তি পেতে চলেছে৷ ফলে নতুন বছরের শুরুতেই বক্সঅফিসে বড়সড় ধামাকা আসতে চলেছে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না৷ যদিও নীরজ পান্ডে তাঁর আইয়ারি ছবি মুক্তির দিন পিছিয়ে ফেব্রুয়ারিতে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবছেন, তবে অক্ষয় কুমারের কাছে আর কোনও সুযোগ আপাতত নেই। কারণ, সারা ভারতের মোট ৫৫০০ স্ক্রিনের মধ্যে এখনই প্যাডমানের প্রযোজক ১৫০০ স্ক্রিন বুক করে ফেলেছেন৷ ফলে পদ্মাবতের মুক্তির দিন যদি ২৫ তারিখ ধরাও হয় তবে আইয়ারী সিনেমাকে বাদ দিলে এই বছরে বড় বক্সঅফিস ক্ল্যাশ কিন্তু লাগতে চলেছে। তবে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ, বিহার এই পাঁচ রাজ্যে এখনই মুক্তি পাচ্ছে না পদ্মাবত্৷

একটা সময় সিনেমাপ্রেমীরা প্রায় আশাই ছেড়েই দিয়েছিল পদ্মাবত সিনেমার মুক্তি নিয়ে৷ ২০১৭ সালের পয়লা ডিসেম্বর ছিল রণবীর সিং, দীপিকা পাডুকোন এং শাহিদ কাপুর অভিনীত পদ্মাবতী সিনেমার মুক্তির দিন৷ কিন্তু সমালোচনা, হুমকি, আন্দোলনের জেরে ছবিটি রিলিজ করা যায়নি ওই দিন৷ অবশেষে সেন্সর বোর্ডে ২০০ জন সদস্যকে ছবিটি দেখানো হয়৷ তাদের পক্ষে ছবিটি ক্লিয়ারেসন্স দেওয়া অত্যন্ত চাপের ছিল৷ ছবিটি পাশ হয় সেন্সর বোর্ডে। তবে ২৬টি কাট এবং পদ্মাবতী নামটি পরিবর্তন করা হলে তবেই মিলবে ইউ/এ সার্টিফিকেশন, এমনটাই জানায় সিবিএফসি কর্তৃপক্ষ৷ ইতিমধ্যে নাম পরিবর্তন করে পদ্মাবত করা হবে বলে জানানোও হয়েছে৷ এরপরেই বাড়তি অক্সিজেন পায় পদ্মাবতের গোটা ইউনিট।