স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: দল বদল হয়েছে৷ তার সঙ্গে সঙ্গে বদলে গিয়েছে উপলোব্ধি৷ সিঙ্গুর আন্দোলন ভুল ছিল বলে জানিয়েছেন বিজেপির মুকুল রায়৷ মুকুলের বিলম্বিত বোধদয় প্রসঙ্গ তুলে দলের একদা ‘সেকেন্ড ইন কম্যান্ড’কে কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷

মুকুলের বিলম্বিত বোধদয় নিয়ে বুধবার ডায়মন্ডহারবারের সাংসদ অভিষেকের প্রশ্ন, ‘‘ভূলই যদি বুঝেছিলেন তবে সেদিন দল ছাড়েননি কেন৷’’ নিজের পিঠ বাঁচাতে দল বদল করেছেন মুকুল রায়৷ অস্তিত্ব প্রমাণে তৃণমূল ভাঙানোর খেলায় মেতেছেন তিনি৷ মিথ্যা বলছেন বিজেপিতে নিজের আসন পোক্ত করতে৷ মনে করেন মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো অভিষেক৷

আরও পড়ুন: রাজ্যের প্রধান চার রাজনৈতিক দলকে বৈঠকে আহ্বান রাজ্যপালের

সিঙ্গুরের জমি আন্দোলন তৃণমূলের উত্থানের সোপান৷ যা তরান্বিত হয় নন্দীগ্রামে জমি আন্দোলনের মধ্যে দিয়ে৷ তৃণমূল সুপ্রিমো সেই সব আন্দোলনের মুখ হলেও নেপথ্যের কারিগর হিসাবে বাহবা পেয়ে থাকেন মুকুল রায়৷ তাঁর মুখেই কিনা শোনা গেল সিঙ্গুর আন্দোলন ‘ভুল’ ছিল৷

হুগলি লোকসভায় এবার জয় পেয়েছেন বিজেপি প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায়৷ জয়ের পর পরই তিনি দাবি করেন ‘শিল্প চাই’৷ টাটারা সিঙ্গুর থেকে ফিরে যাওয়া রাজ্যের ভাবমূর্তিকে আঘাত করা৷ সিঙ্গুরের বাসিন্দাদের দাবি মেনেই সেই আওয়াজ তোলেন লকেট৷ তারপরই সিঙ্গুর নিয়ে ভিন্ন সুর মুকুলের গলায়৷

বিজেপি নেতা মুকুল রায় বলেছিলেন, ‘‘তৃণমূলে থাকার সময়ে আমিও সিঙ্গুর আন্দোলনে শামিল হয়েছিলাম। বিরোধিতা করেছিলাম টাটাদের। কিন্তু এত বছর পরে ভুল স্বীকার করে বলছি, সে দিন টাটাদের চলে যাওয়া ঠিক হয়নি। এর ফলে শিল্প সম্ভাবনা হারিয়েছে বাংলা। সেই সময়ে টাটাদের ওই কারখানা হলে দেখাদেখি আরও শিল্প গোষ্ঠী বাংলায় আসত। চাকরির সুযোগ বাড়ত। বেকারত্বের বাজারে রাজ্যের ছেলেরা চাকরি পেত।’’

আরও পড়ুন: লালবাজার অভিযানে নৈতিক জয় দেখছে গেরুয়া বাহিনী

তৃণমূলের যুব নেতা অভিষেকের দাবি, ‘‘দলের নেতাদের ‘খুশি’ করতেই ওই স্বীকারোক্তি মুকুল রায়ের৷’’ তাঁর সংযোজন, ‘‘গোটা দলটাই মিথ্যার উপর দাঁড়িয়ে রয়েছে৷ দিল্লির নেতাদের কাছে পয়েন্ট বাড়ানোর বিষয় রয়েছে রাজ্য নেতাদের৷ তাই যা মুখে আসে তাই বলেন৷’’

প্রায় তেরো বছর পর হঠাৎ কেন ভুল স্বীকার মুকুল রায়ের? রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা, দল বদল হয়েছে৷ শিল্পের কথা বলেই সিঙ্গুরে প্রায় ১৩ হাজার ভোটে লিড পেয়েছেন লকেট চট্টোপাধ্যায়৷ তাই দলের কথায় সায় দিয়েই সিঙ্গুর নিয়ে অবস্থান বদল মুকুল রায়ের৷ আর মুকুলের এই বিলম্বিত বোধদয়কেই তুলে ধরে বিজেপির বিরোধীতায় রাজ্যের শাসক দল৷