কোঝিকোড়: আফগানিস্তানের আইএস জঙ্গি শিবিরে রয়েছেন ৩০ ভারতীয় যুবক৷ এরা প্রত্যেকেই কেরলের বাসিন্দা৷ এমনই রিপোর্ট দিল এনআইএ৷ সন্দেহ এই জঙ্গি যুবকরা দেশে ফিরে ভয়াবহ নাশকতা ঘটাবে৷ এদের দিয়েই ভারতের মাটিতে জঙ্গি জাল ছড়িয়ে দেবে ইসলামিক স্টেট৷ এনআইএ-র রিপোর্টে বলা হয়েছে, উপসাগরীয় দেশগুলিতে কর্মরত কেরলের যুবকদের সঙ্গে আইএসের যোগসূত্র তৈরি হয়েছে৷ এক্ষেত্রে ধর্মীয় পরিচয়টি খতিয়ে দেখেছে ইসলামিক স্টেট৷ প্রবাসী ভারতীয় ব্যবসায়ীদের কয়েকজন এদের অর্থের যোগানদার৷ চাঞ্চল্যকর এই রিপোর্টে উদ্বিগ্ন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক৷ চিন্তিত কেরল সরকার৷ এনআইএ জানিয়েছে, জঙ্গি ঘাঁটিতে পরিণত হতে চলেছে দক্ষিণের রাষ্ট্রটি৷ রিপোর্টে বলা হয়েছে. বিশেষ ধর্মীয় গোষ্ঠীর সঙ্গে জড়িত যুবকরাই সরাসরি আইএসে যোগ দিয়েছে৷
কেরলেই আইএস প্রধান সাজের আবদুল্লা মাঙ্গলাসেরি৷ তাকে চিহ্নিত করা হয়েছে৷  ৩৫ বছরের সাজের সিভিল ইঞ্জিনিয়ার৷ সে কোঝিকোড় এনআইটির প্রাক্তন ছাত্র৷ পরে কর্মসূত্রে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে ছিল৷ এখন সে লুকিয়ে আফগানিস্তানে৷ তার মাধ্যমেই কেরলের যুবকরা আইএসের জঙ্গি খাতায় নাম লিখিয়েছে৷ স্ত্রী সহ নিখোঁজ এক যুবকের খোঁজে তদন্ত শুরু হতেই এসব তথ্য পেয়েছে এনআইএ৷ গোয়েন্দাদের ধারণা, ওই যুবক সস্ত্রীক আইএসে যোগ দিয়েছে৷