কল্যাণী: দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান। আগামী ২৭ জানুয়ারি থেকেই কল্যাণীর এইমসে আউটডোর পরিষেবা চালু হয়ে যাচ্ছে। তবে কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, এখনই পুরোদমে আউটডোর পরিষেবা চালু করা হচ্ছে না। আপাতত আউটডোরের আটটি বিভাগে চালু হচ্ছে চিকিৎসা পরিষেবা। পরবর্তী সময়ে ধাপে-ধাপে সব বিভাগেই পরিষেবা চালু করা হবে।

আগামী বুধবার থেকেই কল্যামীর অল ইন্ডিয়া মেডিক্যাল সায়েন্সেস বা এইমসে আউটডোর পরিষেবা চালু হয়ে যাচ্ছে। আগে থেকে নাম রেজিস্ট্রেশন করানো থাকলে তবেই মিলবে পরিষেবা। এমনটাই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে।

কল্যাণীর বসন্তপুরে গড়ে উঠেছে এইমস। ২০১৬ সালে এই হাসপাতাল তৈরির কাজ শুরু হয়েছিল। এখন প্রায় পুরো কাজই শেষের পথে। ২০১৯ সাল থেকে এখানে পড়ুয়া ভর্তি নেওয়া শুরু হয়েছিল। তবে এতদিন পর্যন্ত চালু করা যায়নি চিকিৎসা পরিষেবা। অভ্যন্তরীণ বিভাগগুলির কাজ পুরোপুরি শেষ না হওয়াতেই চিকিৎসা পরিষেবা চালু করা যায়নি।

তবে এবার আউটডোর চালুর পরিকাঠামো তৈরির কাজ শেষ। বুধবার থেকেই আউটডোরের আটটি বিভাগে চালু হয়ে যাবে চিকিৎসা পরিষেবা। জানা গিয়েছে, সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত খোলা থাকবে আউটডোর। তবে আউটডোরে হাজির হয়েই চিকিৎসককে দেখানো যাবে না।

ডাক্তার দেখাতে গেলে আগে থেকে নাম রেজিস্ট্রেশন করাতে হবে। তারপর নির্দিষ্ট আউটডোর বিভাগে গিয়ে চিকিৎসককে দেখানো যাবে। জানা গিয়েছে, সপ্তাহে পাঁচদিন কল্যাণীর এইমসের আউটডোর বিভাগ চালু থাকবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.