অনলাইনে বিক্রি হচ্ছে বাংলাদেশের পতাকা জুতো! তীব্র প্রতিবাদ

ঢাকাঃ  মার্কিন ই-কমার্স সংস্থা জ্যাজল-এ বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা ও মানচিত্রকে একে দেওয়া হয়েছে জুতোয়! আর তা দেখে তীব্র সমালোচনা-বিতর্ক তৈরি হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে।

অনলাইন কেনাকাটার এই ওয়েবসাইটে সম্প্রতি লাল-সবুজ রঙে অনেক পণ্যের সঙ্গে জুতো বাংলাদেশের ইন্টারনেটের ইউজারদের নজরে আসে। জ্যাজলের নতুন পণ্যগুলোর মধ্যে দেখা যায়, ‘বাংলাদেশি ফ্ল্যাগ: শ্যামরক হাইটপ স্নিকারস’, ‘বাংলাদেশি ফ্ল্যাগ: শ্যামরক ফ্লিপ ফ্লপস’, ‘বাংলাদেশি ফ্ল্যাগ: লো টপ ও হাই টপ স্নিকারস’, ‘ক্র্যাজি ফ্ল্যাগ: স্লিপ অন স্লিকারস’, ‘আই লাভ বাংলাদেশ উইথ ম্যাপ স্লিপ অন স্লিকারস’, ‘আই লাভ বাংলাদেশ উইথ ম্যাপ স্লিপ অন স্নিকারস ম্যাপ হাই টপ স্লিকারস’।  বিজ্ঞাপনে জ্যাজল বলেছে, “আমাদের বাংলাদেশ ফ্ল্যাগ সেকশনে দেখবেন কেবল পুরুষদের জন্য বাহারি ঢং,রঙ আর ধরনের জুতোগুলো আনা হয়েছে।  দারুণ সব জুতাগুলো এখনই সংগ্রহ করুন।  আর চাইলে বিনামূল্যেই জুতোর নানা ইমেজ, প্যার্টান আর টেক্সটও যোগ করতে পারেন আপনি।”

ক্যালিফোর্নিয়ার রেডউড সিটিতে রবার্ট বেভ, ববি বেভ আর জেক বেভ ১৯৯৯ সালে শুরু করেন জ্যাজলের ব্যবসা।  বিভিন্ন ব্র্যান্ডের পাশাপাশি ব্যক্তিগতভাবেও নিজের তৈরি পণ্য জ্যাজল-এ বিক্রির জন্য তোলা যায়।  বাংলাদেশি পতাকার রঙের জুতাগুলো তৈরি করেছে ডেল্টা কাস্টম, নকশা করেছে শাওলিনমড।  এই সমস্ত প্রোডাক্টের বিজ্ঞাপনও করা হয়েছে।  আর তা দেখে চটে আগুন বাংলাদেশের মানুষ।  শুধু সাধারণ মানুষই নয়, এই ধরনের কাজের তীব্র সমালোচনা করেছেন বাংলাদেশের বুদ্ধিজীবী থেকে শুরু করে সংস্কৃতিজগতের মানুষও।

যদিও সোশ্যাল মিডিয়াতে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে রাতারাতি জ্যাজলের ওয়েবসাইটে জুতাগুলো দেখা যাচ্ছে না।  তবে বাংলাদেশে পতাকার রঙে অন্য সামগ্রীগুলো রয়েছে বলেই দাবি করেছে বিডি নিউজ ২৪।