স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ভয়ে ঠাকুর দেখতে আসতে না পারলেও আফশোস নেই। দর্শনার্থীরা যাতে শহরের পুজোগুলির আনন্দ থেকে বঞ্চিত না হন তাই এবার অনলাইনে দুর্গাপুজো দেখাবে পুজো উদ্যোক্তাদের মঞ্চ ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’।

পুজোর আর মাত্র কয়েক মাস বাকি। অন্যান্য বছর এই সময় জোরকদমে প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায়। থিম নিয়ে একে অপরকে টেক্কা দেওয়াও সব কাজই চলতে থাকে গোপনে। তবে এবারের ছবিটা একেবারেই অন্য। যেভাবে করোনার প্রকোপ বেড়েই চলেছে, তাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আগের মত পুজো করা সম্ভব নয়। তাছাড়া, টানা লকডাউনের জেরে অর্থনৈতিক সংকট, যার ধাক্কায় ম্রিয়মাণ পুজোর উদ্যোক্তারাও। সবদিক বিবেচনা করেই এবার অনলাইনে পুজো দেখানোর বন্দোবস্ত করছে উদ্যোক্তারা।

ফোরাম ফর দুর্গোৎসব এবং ‘শিবমন্দির’ পুজো কমিটির অন্যতম কর্তা পার্থ ঘোষের কথায়, “ঘরে বসেই মানুষ যাতে পুজোর আনন্দ উপভোগ করতে পারেন, আমরা সেই চেষ্টা চালাচ্ছি। বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে যে পুজো দেখানো হয়, তেমন পুজো-পরিক্রমা নয়। এটা একেবারে অন্য আঙ্গিকে দেখানো হবে । প্রাথমিকভাবে ঠিক করেছি, কলাবউ স্নান থেকে শুরু করে মহাষ্টমীর অঞ্জলি, বা সন্ধিপুজোর মতো সব আচার-অনুষ্ঠানগুলিকে দেখানো হবে অনলাইনে। সরাসরি সম্প্রচারিত হবে চণ্ডীপাঠ থেকে আরতি। সেইসঙ্গে মণ্ডপসজ্জা, আলোকসজ্জা তো আছেই। “

‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’-এর সাধারণ সম্পাদক শাশ্বত বোস অবশ্য বলেন, “এই অনলাইনে পুজো দেখানোর পরিকল্পনা আমাদের গত বছরই ছিল। কোনও কারণে হয়নি। কিন্তু এবার করোনার জন্য এটা বাস্তবায়িত হচ্ছে।”

জানা গিয়েছে, সব পুজো কমিটিগুলো একসঙ্গে তাদের সব আচার দেখাতে পারবে না। কোন কোন পুজো কমিটি কী কী দেখাবে, সেগুলি পরবর্তীকালে আলোচনা সাপেক্ষে ঠিক করা হবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।