নয়াদিল্লি: সাপ্লাই নেই পেঁয়াজের। তাই একধাক্কায় অনেকটাই বেড়ে গেল পেঁয়াজের দাম। রান্নাঘরে অপরিহার্য এই পেঁয়াজের দাম এক মাসেই ৭৬ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে।

দেশের একাধিক রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় আমদানি কমেছে। আর তার জেরেই পেঁয়াজের দাম বেড়েছে প্রায় ৭৬%। মূল্যবৃদ্ধিত এই তথ্য পাওয়া গিয়েছে ন্যাশনাল হর্টিকালচার রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন থেকে।

কর্ণাটক, মহারাষ্ট্র ও মধ্যপ্রদেশে বন্যার জেরে দাম কমেছে পেঁয়াজের সরবরাহ ও এই কারণেই বেড়েছে দাম। এক মাস আগে কেজি প্রতি পেঁয়াজের দাম ছিল ১২.৫০ টাকা যা এখন বেড়ে হয়েছে কেজি প্রতি ২২টাকা। মূলত কর্ণাটক, মহারাষ্ট্র ও মধ্যপ্রদেশে বন্যা পরিস্থিতির জেরেই কমেছে পেঁয়াজের সরবরাহ ও এই কারণেই বেড়েছে দাম।

উত্তর কর্ণাটক ও মহারাষ্ট্রে বন্যার জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কৃষিকাজ ফলে অনেকক্ষেত্রেই বেশি দামের আশায় পেঁয়াজ মজুদ করে রাখছেন কৃষকরা। মহারাষ্ট্রের লাসালগাঁও, যা এশিয়ার বৃহত্তম পেঁয়াজের বাজার, সেখানে প্রায় ৪০% হারে বৃদ্ধি পেয়েছে পেঁয়াজের দাম।

পরিস্থিতি সামাল দিতে কঠোর হয়েছে কেন্দ্রও। বেআইনিভাবে পেঁয়াজ মজুদ করে রাখলে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। কনস্যুমার অ্যাফেয়ার্স দফতর থেকে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হয়েছে। সভাপতি অবিনাশ শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন মাদার ডেয়ারি আউটলেটে কেজি প্রতি ২৩.৯০ টাকা দরে বিক্রি করা হবে পেঁয়াজ। নির্দিষ্ট সময় পর পেঁয়াজের মূল্য খতিয়ে দেখা হবে কেন্দ্রের তরফ থেকে।

কৃষি মন্ত্রক দেখেছে, গত বছরের তুলনায় এবছর পেঁয়াজের ফলন বেশি হয়েছে। গত বছর ফলন ছিল ২৩.২৬ মিলিয়ন টন, এবছর ফলন বেড়ে হয়েছে ২৩.৬২ মিলিয়ন টন।