কলকাতা:‌ পেঁয়াজের দামে কিছুতেই নাগাল আসছে না। চলতি মাসেও কলকাতা ও শহরতলির বাজারে দাম বাড়ছে পেঁয়াজের। দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় পেঁয়াজের দামে কিছুতেই লাগাম পরানো যাচ্ছে না। খুচরো বাজারে এখনও ৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। বার কয়েক ৫০ টাকায় নামলেও কয়েকদিনেই তা ৭০ ছুঁয়েছে। বাজারে গিয়ে এখনও চাহিদা মতো পেঁয়াজ কিনতে পারছে না আম-আদমি।

পেঁয়াজের লাগামছাড়া দামে জেরবার গৃহস্থ। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে শুরু পেঁয়াজের অস্বাভাবিক দাম-বৃদ্ধি। লাফিয়ে লাফিয়ে দাম বাড়তে শুরু করে দেশের একাধিক রাজ্যে ১৮০ থেকে ২০০ টাকা কেজিতেও বিক্রি হয়েছে পেঁয়াজ। কলকাতার বাজারে একটানা কয়েক সপ্তাহ ধরে ১৫০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে। তবে কেজিতে ১৫০ টাকা পেঁয়াজের দাম ওঠার পর থেকেই ধীরে ধীরে কমতে শুরু করে দাম। নতুন বছরের শুরু থেকে কেজি প্রতি ৫০-৬০ টাকায় নেমে আসে পেঁয়াজের দাম।

সপ্তাহখানেক কাটতে না কাটতেই কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বাজারগুলিতে ফের বাড়তে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম। গত এক সপ্তাহে ফের পেঁয়াজের দাম বেড়ে হয়েছে ৭০ টাকা থেকে ৮০ টাকা প্রতি কেজি। ইতিমধ্যেই দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু বাজারে নতুন পেঁয়াজ ঢুকেছে। বাজারে ঢোকা নতুন পেঁয়াজের বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ৫০-৬০ টাকায়।

পেঁয়াজের দামে লাগাম পরাতে তৎপর রাজ্য সরকার। সুফল বাংলার স্টলগুলিতে পেঁয়াজ বিক্রি চলছে। তবে ক্রেতাদের অনেকেরই অভিযোগ সেই স্টলে বিক্রি হওয়া পেঁয়াজ বেছে নেওয়া যাচ্ছে না। ফলে অনেক ক্ষেত্রেই পেঁয়াজের মান খারাপ হচ্ছে। কলকাতার একাধিক পাইকারি বাজারে কেজি প্রতি ৩৮-৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। একাধিক হাত ঘুরে খুচরো বাজারে সেই পেঁয়াজেরই দাম বেড়ে হচ্ছে কেজি প্রতি ৬০–৭০ টাকা।