নয়াদিল্লি: বদলাল তারিখ৷ নির্দিষ্ট সময়ের আগেই লঞ্চ করা হচ্ছে OnePlus 6T৷ প্রথমে সেটটি লঞ্চের তারিখ ঠিক হয়েছিল ৩০ অক্টোবর, ২০১৮৷ কিন্তু, হঠাৎই বদলে যায় তারিখ৷ কারণ অনুসন্ধান করতে গিয়ে সামনে আসে আসল তথ্যটি৷ সূত্রের খবর, আগামী ৩০ অক্টোবর একটি ইভেন্টের ঘোষণা করে মার্কিনি সংস্থা Apple৷ আর, সেই চাপের পড়েই সিদ্ধান্ত বদলাত বাধ্য হয় এই চিনা স্মার্টফোন প্রস্তুতকারক সংস্থাটি (OnePlus)৷

OnePlus এর সিদ্ধান্ত নিয়ে ইতিমধ্যেই চলছে গুঞ্জন৷ কারণ হিসেবে সামনে আসছে বেশ কিছু তথ্য৷ এই প্রথমবার মার্কিন যুক্তরাস্ট্রে লঞ্চ ইভেন্টের আয়োজন করেছে OnePlus৷ ভারতীয় বাজারে বেশ প্রতিষ্ঠিত এই চিনা ব্রান্ডটি৷ অনেকেরই পছন্দের তালিকায় স্থান করে নিতে পেরেছে ফোনটি৷ কারণ অবশ্য একটাই, আকর্ষণীয় ফিচার৷ ভারতীয় মার্কেটে ছেয়ে রয়েছে হাজারো চিনা স্মার্টফোন ব্রান্ড৷ যেগুলির মধ্যে OnePlus ব্যবহারকারীর সংখ্যাও নেহাত কম নয়৷

অন্যদিকে, Apple এর বেশীরভাগ ইভেন্টই হয়ে থাকে ক্যালির্ফোনিয়ার কিউপারটিনোতে৷ মার্কিনি সংস্থাটি সাধারণত বছরে একটি ইভেন্ট অর্গানাইস করে থাকে৷ আর, সেজন্যই ইউজারদের মধ্যে ইভেন্ট নিয়ে উন্মাদনা থাকে যথেষ্ট বেশি৷ যেটি সাধারণত হয়ে থাকে কিউপারটিনোর স্পেসসিপ ক্যাম্পাসে৷ চলতি বছরে সেপ্টেম্বরে এমনই একটি অনুষ্ঠান হয়েছিল৷ Apple এর পরবর্তী এভেন্টটি নিউইর্য়কে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে৷ সেই একই জায়গাতেই OnePlus ইভেন্ট অর্গানাইজ করেছিল৷

সোজা কথায়, Apple কে OnePlus এর প্রতিদ্বন্ধী বললেও ভুল বলা হবে না৷ বলা বাহুল্য, নিজের অস্তিত্বকে কখনই ঢাকা ফেলতে চায় না OnePlus৷ সেজন্যই OnePlus 6T লঞ্চের ইভেন্টকে এগিয়ে নিয়ে এসেছে সংস্থা৷ এমনই মনে করছে এক্সপার্টদের একাংশ৷ অন্যদিকে, মার্কিনি সংস্থাটির (Apple) বহুদিনের প্রতিদ্বন্ধী সংস্থা হিসেবে উঠে আসছে দক্ষিণ কোরিয়ান সংস্থা Samsung নাম৷