স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: মানসিক অবসাদের জেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নিল বছর ৬৪ -র এক প্রৌঢ়৷ তিনি অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী৷ মৃতের নাম তুষারকান্তি সরকার৷ ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ির নিউ সার্কুলার রোড এলাকায়। তুষারবাবু মহকুমা শাসকের গাড়ির চালক ছিলেন৷ ২০১৪ সালে কর্মজীবন থেকে অবসর গ্রহণ করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, রবিবার সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর পরিবারের লোকেরা দেখতে পায় বারান্দায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছেন তুষারবাবু। কিন্তু এই মৃত্যুর কারণ কি তা কেউই বুঝে উঠতে পারছেন না৷ ঘটনার খবর পেয়ে হাজির হয় পুলিশ৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কোনও সুইসাইড নোট বা অন্য কোনও রহস্য এখনও উদ্ধার হয়নি৷ যদিও এই প্রসঙ্গে পরিবারের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন তুষারবাবু৷ একাধিক রোগ বাসা বেঁধেছিল তাঁর শরীরে৷ চোখে ছানির সঙ্গে শারীরিক ভাবে ক্রমেই অসুস্থ হয়ে পড়ছিলেন তিনি৷ পাশাপাশি স্ত্রী-র অসুস্থতা চিন্তার বড় কারণ হয়ে উঠেছিল তুষারবাবুর জীবনে৷

শনিবার রাতে তুষারবাবু পরিবারের সকলের সঙ্গে খাওয়াদাওয়া করেন। ভাল ভাবে কথাবার্তাও বলেন তিনি৷ কিন্তু পরিবারের কেউ কোনও অস্বাভাবিক বিষয় বুঝতে পারেননি৷ এদিন সকালে পরিবারের লোকেরা বিষয়টি দেখে স্বাভাবিক ভাবেই হতবাক হয়ে যায়। ইতিমধ্যেই পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে৷