নয়াদিল্লি: পাখির চোখ ২০২১। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখেই এবার বাংলা থেকে আরও একজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেতে পারেন। ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা, এরাজ্য থেকে আরও দু’জনকে মন্ত্রী করতে পারে গেরুয়া শিবির। ২০২১-এর বিধানসভা ভোটকে সামনে রেখেই বঙ্গবাসীর মন পেতে ইতিমধ্যেই নাকি সেই তৎপরতা শুরু করেছেন মোদী-শাহরা।

২০১৯ সালে মোদীর দ্বিতীয় মন্ত্রিসভায় এরাজ্য থেকে জয়ী বিজেপির দুই সাংসদকে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী পদে এনেছেন মোদী-শাহরা। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেয়েছেন রায়গঞ্জের বিজেপি সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী ও আসানসোল থেকে জিতে আসা বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়।

এছাড়াও গত লোকসভা ভোটে তৃণমূলকে নাস্তানাবুদ করা বিজেপির আরও কয়েকজনকে সাংসদকে দল ও সংগঠনের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পদে বসিয়েছে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব।

ফাইল ছবি

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় রদবদলের তৎপরতা ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। দেশজুড়ে চলা করোনা পরিস্থিতি ও তার মোকাবিায় লকডাউনের জেরে পিছিয়েছে রাজ্যসভার ভোট।

ঠিক হয়েছে আগামী ১৯ জুন রাজ্যসভার ভোট হবে। মধ্যপ্রদেশের একদা কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া হাত-শিবির ছেড়ে নাম লিখিয়েছেন পদ্ম-শিবিরে। জ্যোতিরাদিত্যকে রাজ্যসভায় জিতিয়ে এনে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পদ দিতে চায় বিজেপি।

জ্যোতিরাদিত্য ছাড়াও আরও বেশ কয়েকজন নতুন মুখ আনা হতে পারে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়। এই পরিস্থিতিতেই শিকে ছিঁড়তে পারে বাংলার কয়েকজন বিজেপি সাংসদের। তবে এখনই চূড়ান্ত কোনও নাম সামনে আসেনি। রাজ্য বিজেপির নেতারাও এব্যাপারে মুখে কুলুপ এঁটেছেন। তবে গুঞ্জন চলছেই।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।