নয়াদিল্লি:  ‘এক দেশ এক রেশন কার্ড’-এর স্টান্ডার্ড ফর্ম্যাট-এর নকশা বানিয়েছে কেন্দ্র। রাজ্য সরকারগুলিকে বলেছে এটা অনুসরণ করে নতুন রেশন কার্ড ইস্যু করতে ৷ মূলত দেশজুড়ে খাদ্যের অধিকার সুনশ্চিত করতেই এক দেশ এক রেশন কার্ড ব্যবস্থা চালু করতে চলেছে। চলতি বছরের ১ জুন থেকে গোটা দেশজুড়ে ‘এক দেশ এক রেশন কার্ড’ ব্যবস্থা চালু করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান জানিয়েছেন, ১ লা জুন অর্থাৎ সোমবার থেকে চালু হওয়া এই প্রকল্পের আওতায় আসতে চলেছে গোটা দেশ। আর তা চালু হলে যে কোনও গ্রাহকই দেশের যেকোনও প্রান্তের রেশন দোকান থেকে সরকার-নির্ধারিত ভরতুকিযুক্ত মূল্যে খাদ্যশস্য কিনতে পারবেন । তখন দেশের সমস্ত রেশন কার্ডের তথ্য একটি সার্ভারে জমা থাকবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী।

পাশাপাশি, এই প্রকল্প চালু হলে একদিকে যেমন ভুয়ো রেশন কার্ড রোখা যাবে। অন্যদিকে, ভিন-রাজ্যে গিয়ে বসবাস করলেও রেশন থেকে বঞ্চিত হবেন না কোনও উপভোক্তা। আর সেই কারণে দেশজুড়ে একটাই রেশন কার্ড চালু করার উদ্যোগ মোদী সরকারের।

ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি রাজ্যে এই সুবিধা লাগু হয়েছে। ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি থেকেই অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, মহারাষ্ট্র, গুজরাট, কেরালা, কর্ণাটক, হরিয়ানা, রাজস্থান, ত্রিপুরা, গোয়া, ঝাড়খণ্ড এবং মধ্যপ্রদেশে ‘এক দেশ এক রেশন কার্ড’ ব্যবস্থা চালু হয়েছে। যদিও এখনও রাজ্যে এই ব্যবস্থা লাগু হয়নি। কেন্দ্রীয় সরকার জানাচ্ছে, ২০২০ সালের জুনের মধ্যেই গোটা দেশজুড়ে এই ব্যবস্থা লাগু হয়ে যাবে। ইতিমধ্যে এই বিষয়ে প্রাথমিক কাজ সারা হয়ে গিয়েছে। এই ব্যবস্থা চালু হওয়াতে উপকৃত হবে প্রায় ৩৫ কোটি মানুষ। জানা গিয়েছে ২০২০ সালের জুন মাসের মধ্যে ২০ টি রাজ্যতে এই ব্যবস্থা চালু হবে।