শ্রীনগর:  গত ২৪ ঘন্টায় লাগাতার সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করল পাকিস্তান। ভারতীয় সেনা ছাউনি লক্ষ্য করে চলছে অনবরত মর্টার শেলিং। পালটা জবাব ভারতীয় সেনার তরফেও। দুপক্ষের গোলাগুলির মধ্যে পড়ে বিএসএফে এক জওয়ান গুরুতর জখম হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তাঁকে সেনা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। শুরু হয়েছে চিকিৎসা। সোমবার সকাল থেকে নতুন করে ফের শেলিং শুরু করেছে পাকসেনা। পুঞ্চের কৃষ্ণাঘাঁটিতে এই শেলিং শুরু হয়েছে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে ভারত এবং পাকিস্তান সীমান্তে।

রবিবার ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে ম্যাচ চলাকালীনই অশান্ত হয়ে ওঠে দুদেশের সীমান্ত। খেলা চলাকালীন হঠাতই ভারতীয় সেনা ছাউনি টার্গেট করে হেভি শেলিং শুরু করে পাকিস্তান। জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ সেক্টরে লাগাতার শেলিং শুরু করে পাকিস্তান সেনা। যদিও ভারতের তরফেও পালটা জবাব দেওয়া হয়। একেবারে খোল হাতে পাকিস্তানকে জবাব দেয় ইন্ডিয়ান ফোর্স। অন্ধকারে নতুন করে গুলির লড়াইয়ে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত।

নতুন করে সোমবার সকাল কৃষ্ণাঘাঁটি ফের বিনা প্ররোচনায় সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করছে পাকসেনা। নতুন করে পাকিস্তানের এই মর্টার শেলিংয়ে সীমান্তে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। দ্রুত স্থানীয় মানুষজনকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। জানা যাচ্ছে, সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন হওয়ার সঙ্গে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে হাই-অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

অন্যদিকে অনন্তনাগে জঙ্গি এবং নিরাপত্তাকর্মীদের মধ্যে গুলির লড়াই শুরু হয়েছে। গোপন সূত্রে নিরাপত্তাকর্মীদের কাছে খবর আসে যে অনন্তনাগে তিন জঙ্গি লুকিয়ে আছে। আর সে খবর পেয়েই সেখানে হানা দেয় জওয়ানরা। আর তা দেখেই নিরাপত্তারক্ষীদের লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি ছুঁড়তে শুরু করে জঙ্গিরা। পালটা জবাব সেনার। পুরো এলাকা কর্ডন করে ফেলেছে সেনাবাহিনী। অন্য কোথায় জঙ্গিরা লুকিয়ে রয়েছে কিনা তা জানতে শুরু হয়েছে তল্লাশি অভিযান।