- Advertisement -

শিলিগুড়ি: লক্ষ্য পঞ্চায়েত৷ চলছে জোরকদমে প্রস্তুতি৷ নির্বাচনকে পাখির চোখ পাহাড় দখলে লক্ষ্যে এগোচ্ছে তৃণমূল-বিজেপি৷ নির্বাচনী প্রচার ও জনসভাকে কেন্দ্র করে ধীরে ধীরে উত্তাপ বাড়ছে পাহাড়ে৷ একই দিনে উত্তরবঙ্গের দুই প্রান্তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-অমিত শাহের সভাকে কেন্দ্র করে উত্তরে রাজনীতির রঙ চড়তে শুরু করেছে৷

আগামী ২৫ এপ্রিল কোচবিহারে সভা করবেন মুখ্যমন্ত্রী৷ অন্যদিকে একই দিনে শিলিগুড়িতে সভা করবেন বিজেপি সভাপতি। শাসক-বিরোধী দলের সভাকে ঘিরে উত্তরবঙ্গে উন্মাদনা শুরু হয়েছে। বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে দুই সভায় কে কী বলেন তা নিয়ে যেমন কৌতূহল তুঙ্গে উঠছে, তেমনই কে কাকে কীভাবে আক্রমণ শানান তা নিয়েও শুরু হয়েছে জোর চর্চা।

- Advertisement -

তৃণমূল সূত্রে খবর, এবারে মুখ্যমন্ত্রী চারদিনের উত্তরবঙ্গ সফর রয়েছে৷ কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ার দুই জেলায় যাবেন তিনি। অন্যদিকে বিজেপি’র সর্বভারতীয় সভাপতির একদিনের উত্তরবঙ্গ সফর রয়েছে। শিলিগুড়িতেই তাঁর কর্মসূচি। তবে মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি অনুষ্ঠানের পাশাপাশি রয়েছে রাজনৈতিক কর্মসূচি।

বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচন ও পরবর্তী লোকসভা নির্বাচন মাথায় রেখে উত্তরবঙ্গে সংগঠনকে শক্তিশালী করাই বিজেপি’র টার্গেট। অমিত শাহর কর্মসূচিও পুরোপুরি রাজনৈতিক। এই সফরে তিনি সম্পূর্ণই সাংগঠনিক কর্মসূচিতে যোগ দিতে আসছেন। আগামী ২৫ এপ্রিল বিমানে বেলা সওয়া ১১টা নাগাদ বাগডোগরাতে নামবেন অমিত শাহ। তাঁর সঙ্গে থাকবেন সাংগঠনিক সর্বভারতীয় সভাপতি শিব প্রকাশ, রাজ্যের পযর্বেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়, রাহুল সিনহা, সুনীল পুজারী, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া। বিমানবন্দর থেকে সোজা চলে যাবেন নকশালবাড়ি। সেখানে সবাইকে নিয়ে একটি বুথ পরিদর্শন করবেন সর্বভারতীয় সভাপতি। সেখানে সাংগঠনিক কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। তারপর ওই বুথেরই পাঁচটি বাড়িতে বসিন্দাদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলবেন সর্বভারতীয় সভাপতি। বিকালে শিলিগুড়ি ইনডোর স্টেডিয়ামে সভা করবেন অমিতবাবু। রাতে উত্তরবঙ্গের আট জেলার নেতৃত্বকে নিয়ে বৈঠক করবেন তিনি। তারপর রাতের ট্রেনে কলকাতা ফিরবেন।