মুম্বই: ক্রিকেটে পিচের গুরুত্ব কতটা, তা বোঝার জন্য বিশেষজ্ঞ হওয়ার প্রয়োজন নেই৷ সাম্প্রতিক কালে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অনুরাগীদের মুখ ফেরানোর কারণ হিসাবে প্রকারান্তরে পিচকে দায়ি করলেন মাস্টার ব্লাস্টার সচিন তেন্ডুলকর৷ ক্রিকেট ঈশ্বরের স্পষ্ট মত যে, ভালো পিচে টেস্ট ক্রিকেট কখনই জৌলুস হারাবে না৷ বাইশগজকেই টেস্ট ক্রিকেটের প্রাণ বা হৃদপিণ্ড বলে বর্ণনা করেন লিটল মাস্টার৷

আরও পড়ুন: লাথামের শতরানে চালকের আসনে নিউজিল্যান্ড

তেন্ডুলকর বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটের হৃদয় হল কোন ধরণের পিচে তা খেলা হচ্ছে৷ যদি ভালো পিচে টেস্ট খেলা হয়, ক্রিকেট কখনই বিরক্তিকর মনে হবে না৷ ভালো পিচে টেস্ট ক্রিকেট কদর্য মনে হবে না৷ উত্তেজক সব মুহূর্ত দেখা যাবে৷ ভালো বোলিং স্পেল, অসাধারণ ব্যাটিং, লোকে তো এসবই দেখতে চায়৷’

চলতি অ্যাসেজ সিরিজে লর্ডসের বাইশগজের উদাহরণ টেনে তেন্ডুলকর বলেন, ‘লর্ডসে প্রায় দেড়দিন নষ্ট হয়েছে বৃষ্টিতে৷ তা সত্ত্বেও টেস্ট ম্যাচ অত্যন্ত উত্তেজক রূপ নেয় শেষ দিনে৷ ইংল্যান্ড পর পর উইকেট তোলায় অস্ট্রেলিয়াকে ম্যাচ বাঁচাতে রীতিমতো লড়াই চালাতে হয়৷ টেস্ট ক্রিকেটকে উত্তেজক করে তুলতে ঠিক এই ধরণের পিচই দরকার৷’

আরও পড়ুন: স্টোকসের অতিমানবিক ইনিংসে অবিশ্বাস্য জয় ব্রিটিশদের

মাস্টার ব্লাস্টার টেনে আনেন আর্চারের সঙ্গে স্টিভ স্মিথের ডুয়েলের প্রসঙ্গেও৷ তিনি বলেন, ‘আর্চারের বাউন্সারে স্মিথের চোট পাওয়া দূর্ভাগ্যজনক৷ চোট পাওয়াটা স্মিথের কাছে বড় ধাক্কা৷ তবে লোকে আর্চারের সঙ্গে স্মিথের লড়াই উপভোগ করেছে৷ এমন রোমাঞ্চক ব্যাট-বলের লড়াইয়ের জন্যই সবার নজর ছিল টেস্টের দিকে৷ মাত্র ক’দিন আগেই ঘরের মাঠে ইংল্যান্ড বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছে৷ লোকে সেকথা ভুলে গিয়ে অ্যাসেজ নিতে আলোচনা করছে৷ টেস্টে ক্রিকেট নিয়ে মেতে রয়েছে সবাই৷ সেটা সম্ভব হয়েছে উপযুক্ত পিচের জন্যই৷’