চন্ডীগড়: সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে নির্বাচন কমিশন অ্যাপ চালু করেছে৷ নির্বাচন সংক্রান্ত যেকোনও অভিযোগ সেখানে জানাতে চালু হয়েছে এই অ্যাপ৷ কিন্তু সেখানে অভিযোগ নয়, সেলফিতে ভরিয়ে দিচ্ছেন সাধারণ মানুষ৷ এছাড়া অ্যাপে গাছ, আলোকস্তম্ভ ও কম্পিউটার স্ত্রিনের ছবিতে ছয়লাপ৷ কেউ কেউ সেখান থেকে ছবি নামিয়ে মোবাইলের ওয়ালপেপার রাখছেন৷ অর্থাৎ নির্বাচন কমিশনের অ্যাপ এখন থিম ও ওয়ালপেপার অ্যাপে পরিণত হয়েছে৷

ভোট প্রক্রিয়ায় সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণ বাড়াতে নির্বাচন কমিশন সিটিজেনস ভিজিল নামে একটি অ্যাপ লঞ্চ করে৷ যা ‘সি-ভিজিল’ অ্যাপ নামে বেশি পরিচিত৷ এর আগে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ও ছত্তিশগড়ের বিধানসভা নির্বাচনে সি-ভিজিল ব্যবহার করা হলেও এই প্রথম লোকসভা ভোটে এই অ্যাপ চালু করল কমিশন৷ কোনও প্রার্থী নির্বাচনী বিধি ভঙ্গ করে থাকলে তা সরাসরি এই অ্যাপে গিয়ে অভিযোগ জানানোর সুবিধা করে দিয়েছে কমিশন৷ প্রমাণ হিসাবে অভিযোগকারীকে ছবি ও ভিডিও সেখানে আপলোড করতে হবে৷

সেই ছবি ও ভিডিও দেখে কমিশনের চোখ ছানাবড়া৷ কেউ পোস্ট করেছেন সেলফি, নৈসর্গের ছবি কেউবা পোস্ট করেছেন নাচ-গান বা মজাদার ভিডিও৷ শুধু অভিযোগটাই নেই৷ পঞ্জাব নির্বাচন কমিশনের এক আধিকারিকের কথায়, অ্যাপে যতগুলি অভিযোগ তারা পেয়েছেন তার ৬০ শতাংশের সঙ্গে নির্বাচনের কোনও সম্পর্ক নেই৷ পরিসংখ্যান দিয়ে তিনি বলেন, সি-ভিজিল অ্যাপে তারা ২০৪টি অভিযোগ পেয়েছেন৷ তার মধ্যে ১১৯টি অভিযোগই পাতে দেওয়ার যোগ্য নয়৷ উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, ১১৯টি মধ্যে গাছ, বাতিস্তম্ভ, কম্পিউটার স্ক্রিন, কিবোর্ডের ছবি খুঁজে পাওয়া গিয়েছে৷ এছাড়া সেলফির ছবিতে ভরে গিয়েছে অ্যাপ৷

তবে সবাই যে বিষয়টিকে মজার ছলে নিয়েছেন তাও নয়৷ পঞ্জাব নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, অভিযোগগুলির মধ্যে ৮৫টি অভিযোগের সারবত্তা খুঁজে পাওয়া গিয়েছে৷ নির্বাচনী বিধি যারা ভঙ্গ করেছেন তাদের বিরুদ্ধে ছবি সহ অভিযোগ করেছেন অনেকে৷ সেই অভিযোগগুলি খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷ নাগরিকদের প্রতি কমিশনের আধিকারিকদের দায়িত্বশীল হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে৷ জানিয়েছে, অ্যাপের সঠিক ব্যবহার করুন৷ নির্বাচন সংক্রান্ত সমস্যাগুলি এখানে তুলে ধরুন৷