শ্রীনগর: এখনই মুক্তি পাচ্ছেন না জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা। শ্রীনগরের হরি নিবাস থেকে তাঁকে সরানো হচ্ছে একটি বাংলোতে। জানা যাচ্ছে আগামী সপ্তাহে তাঁকে নতুন ঠিকানায় স্থানান্তরিত করা হবে।

খুব তাড়াতাড়ি কাশ্মীরে যাবেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের একটি দল। তাঁদের শ্রীনগরের হরি নিবাসে রাখতে চাইছে স্থানীয় প্রশাসন। সেই কারণেই ওমর আবদুল্লাকে সরানো হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

৩৭০ ধারা বাতিলের পর থেকে কাশ্মীরের স্বাভাবিক পরিস্থিতি সকলের সামনে তুলে ধরতে চেষ্টার কসুর করছে না কেন্দ্রীয় সরকার। সেই কারণেই ইতিমধ্যে উপত্যকায় চালু হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা। তাঁর ঠিক কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে নতুন জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা সামনে এল।

জম্মু কাশ্মীরের বিশেষ তকমা সরে যাওয়ার পর থেকে সেখানে গৃহবন্দি রয়েছেন প্রথম সারির একাধিক নেতা। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন ফারুখ আবদুল্লা, ওমর আবদুল্লা, মেহবুবা মুফতি-সহ অনেকে। ঠিকানা বদল হলেও আপাতত ‘বন্দিদশা’ থেকে এখনই তাঁদের মুক্তি মিলছে না।

আগামী মাসে ভারতে আসার কর্মসূচি রয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের৷ তার আগে জম্মু ও কাশ্মীরের স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফেরাতে মরিয়া মোদী সরকার। ৩৭০ ধারা নিয়ে ভারত সরকারের পাশে থাকলেও রাজনৈতিক নেতাদের ‘বন্দি’ রাখা-সহ কয়েকটি বিষয় নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর তাই ট্রাম্প আসার আগেই ভূস্বর্গের স্বাভাবিক চিত্র তুলে ধরতে মরিয়া কেন্দ্রীয় সরকার।