নয়াদিল্লি : ওএলএক্সে জিনিস কেনা এখন মানুষের কাছে যথেষ্ঠ জনপ্রিয়৷ তবে দিল্লির এক বাসিন্দা ওএলএক্সে ফোন কিনে বেপাকে পড়ল৷ বসন্ত কুঞ্জ (সাউথ) থানা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে৷ পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে শনিবার সকালে বৃজমোহন নামে এক ব্যক্তি ওএলএক্সে একটি ফোন পছন্দ করে৷ সেখানে ফোনটির দাম দশ হাজার টাকা লেখা ছিল৷ যোগাযোগের জন্য একটি নম্বরও সেখানে দেওয়া ছিল বলে জানা যাচ্ছে৷

সেই নম্বরে এই অভিযোগকারি যোগাযোগ করে৷ এই যুবক কে ফোনে বলা হয় রজোকরি ফ্লাইওভারের কাছে এসে ফোনটি নিয়ে যেতে৷ সেই অনুযায়ী এই যুবক এটিএম থেকে দশ হাজার টাকা তুলে রজোকরি ফ্লাইওভারে নিয়ে যায়৷ সে পুলিশ কে জানায় সেখানে পৌঁছতেই বাইকে চরে দুই ব্যক্তি সেখানে পৌঁছয়৷ ঘটনাস্থলে এসে তারা খুবই তারাহুড়ো করে একটি ফোনের প্যাকেট এই যুবকের হাতে দেয়৷ যুবকটি পুলিশ কর্তাদের জানায় এই দুই ব্যাক্তি তাকে বলে এই এলাকায় ব্যাপক হারে ছিন্তাই হয়৷ সেই কারনে তারাতারি তাকে টাকা পয়সা দিয়ে চলে যেতে বলে৷ তাদের কথা শুনে যুবকটি অভিযুক্তদের দশ হাজার টাকা দিয়ে দেয়৷ টাকা হাতে পেয়ে জোড়ে বাইক চালিয়ে তারা ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দেয়৷

তাদের এত তারাহুড়ো করে পালাতে দেখে বৃজমোহন নামে এই যুবকের সন্দেহ হয়৷ সেই ফোনের প্যাকেটটি খুলে দেখে সেখানে ফোনের বদলে একটি বড় কাঁচের টুকড়ো রাখা রয়েছে৷ তখন সে বুঝতে পারে প্রতারকদের জালে ফেঁসে গিয়েছে সে৷ ঘটনাস্থল থেকেই ১০০ ডায়াল করে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে এই যুবক৷ পুলিশের কাছে ঘটনার লিখিত অভিযোগ দায়ের করে বৃজমোহন৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷