স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: সন্ধ্যে হতেই শহর দাপিয়ে চলছে টোটোরাজ৷ নেই লাইট হর্নের বালাই৷ যার জেরে রোজই লেগে আছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা৷ তাই শুক্রবার শহরের এই ধরনের টোটোদের সনাক্তকরণে পথে নামল খোদ জেলা পুলিশের ডিএসপি ট্রাফিক দীপঙ্কর দাস ও ট্রাফিক ওসি শান্তা শীল।

তাঁরা জানালেন, আর সর্তক নয়৷ এবার জরিমানা করেই ছাড়া হবে টোটো চালকদের। এদিন রাতে জলপাইগুড়ির থানা মোড়ে টোটোর লাইট চেক করে ট্রাফিক পুলিশ। যে সব টোটোর লাইট, ইনডিকেটর নেই সেই টোটোগুলি থেকে যাত্রীদের নামিয়ে টোটো বাজেয়াপ্ত করে ট্রাফিক পুলিশ। ইদানীং দেখা যাচ্ছে, টোটো চালকেরা সাদা আলোর এলইডি লাইট ব্যবহার করছে। এই ধরনের লাইট টোটোতে ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি। তাই দ্রুত এই ধরনের লাইট খুলে ফেলার নির্দেশ দেন ডিএসপি।

আরও পড়ুন: ফের বাইপাসে বড়সড় দুর্ঘটনা

শহরে কয়েক হাজার টোটো চললেও প্রায় ৯০ শতাংশ টোটো রাতে লাইট জ্বালিয়ে চলে না। এর ফলে দুর্ঘটনা লেগেই রয়েছে। পথচারীদের দাবি, একেই সম্পূর্ণ বেআইনি ভাবে টোটো চলছে৷ তারমধ্যে বাড়তি সমস্যা টোটোর লাইট। ইতিমধ্যে সব টোটো রিক্সাকে অবৈধ বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

পুরসভা ও বিডিও অফিস থেকে টিন নাম্বার দেওয়ায় কাজ সম্পূর্ণ হলে কিছুটা স্বস্তি হতে পারে শহরবাসীর। এক সময় টোটো শহরের প্রয়োজনে চলাচল করত৷ কিন্তু বর্তমানে যেন এই টোটো জেলা প্রশাসনের গোদের উপর বিষফোঁড়া হয়ে দাঁড়িয়েছে।