স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: নাতনিকে অপহরণের চেষ্টা দুষ্কৃতিদের৷ বাধা দিতে গিয়ে প্রাণ গেল দাদুর৷ মালদহের কালিয়াচক থানা এলাকার ঘটনা৷ অভিযোগের আঙুল স্থানীয় এক যুবক মুজাহিদ শেখ ও তার বাবার বিরুদ্ধে৷ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ৬৫ বছর বয়সী সিদ্দিক শেখের নাতনি স্থানীয় একটি স্কুলের পড়ুয়া৷ পড়াশোনার জন্য একা একা এদিক-ওদিক যেতে হয় তাকে৷ অভিযোগ, সেই সুযোগ নিয়ে তাকে প্রেমের প্রস্তাবও দিয়েছিল মুজাহিদ৷ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় প্রায়ই উত্যক্ত করত তাঁকে৷

আরও পড়ুন: অবাধ ভোটের দাবিতে সাধারণ ধর্মঘটের পথে বামেরা

মঙ্গলবার বাড়ির কাছে রেশন দোকানে গিয়েছিল মেয়েটি৷ অভিযোগ, সেই সময় তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা মুজাহিদ৷ কোনওরকমে পালিয়ে বাড়িতে চলে আসে মেয়েটি৷ কিন্তু কিছুক্ষণ পর মুজাহিদ, তার বাবা দলবল নিয়ে ওই মেয়ের বাড়িতে চড়াও হয়৷ অভিযোগ, মেয়েটিকে অপহরণের ছক কষেছিল তারা৷ বাড়িতে ছিলোন দাদু সিদ্দিক শেখ৷ তিনি বাধা দিতে গেলে মুজাহিদ দলবল নিয়ে ষাটোর্ধ্ব ওই বৃদ্ধকে মারধর করে৷

এদিকে মেয়েটির চিৎকার শুনে গ্রামবাসীরা সেখানে হাজির হয়৷ বিপদ বুঝে চম্পট দেয় অভিযুক্তরা৷ স্থানীয়রাই সিদ্দিক শেখকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যায়৷ চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে৷ এরপরই কালিয়াচক থানায় অভিযোগ দায়ের হয়৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: নেহরু চাইলেও গান্ধীর স্মৃতিসৌধ গড়ায় আপত্তি ছিল বাপুজী ঘনিষ্ঠ বিড়লার