স্টাফ রিপোর্টার, ইংরেজবাজার: এই নিয়ে মোটা পাঁচবার৷ পুলিশের কাছে বারবারই বিচারের আশায় ছুটে গিয়েছেন অসহায় বৃদ্ধ দম্পত্তি৷ বিবাদের মূলে রয়েছে সম্পত্তি৷ আর সেই সম্পত্তি নিয়ে ছেলে-বৌমার কাছেই বেগ পেতে হচ্ছে বৃদ্ধ দম্পতিকে৷ এই ঘটনা হবিবপুর থানা এলাকার দক্ষিণ চাঁদপুর গ্রামের৷

জানা গিয়েছে, বৃদ্ধ দম্পতি মহাবীর মন্ডল(৮১) ও রাধারানী মন্ডলের দুই ছেলে দুই মেয়ে।কর্মজীবনে কারনে এই দম্পতি থাকতেন সদুর চেন্নাই এ। বছর পাঁচেক আগে ফিরেছেন নিজেদের বসত ভিটাতে। এরপরই শুরু হয় অশান্তি। বড় ছেলে শুভ্রাংশু মন্ডল ও তার স্ত্রী সীতা মন্ডল বৃদ্ধ বাবা মাকে মারধোর শুরু করেন। সম্পত্তির দখল নেওয়ার জন্য মাঝে মধ্যেই বসতভিটা থেকে তাড়িয়ে দিতে থাকেন।

পড়ুন: ফুলে ফেঁপে উঠছে ফুলহার, ভাঙনে ঘুম উড়েছে গ্রামবাসীর

এমতাবস্থায় বিচারের আশায় ছুটে যান পুলিশে কাছে৷ ছেলে এবং বৌমার শাস্তি হোক, এই দাবি নিয়ে হবিবপুর থানার অভিযোগও করেন। এদিকে পুলিশ, অভিযোগ পেয়ে অভিযুক্ত বড় ছেলে ও পুত্রবধূর বিরুদ্ধে কোনওরকম ব্যবস্থা না নিয়ে মীমাংসা করেন বলে অভিযোগ। এক স্বেচ্ছাসেবীর সংস্থার অভিযোগ, বার পাঁচেক হবিবপুর থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। কিন্তু পুলিশ যথার্থ ব্যবস্থা নেয় নি।

জানা গিয়েছে, গতকালও মারধোর করে বৃদ্ধ দম্পতিকে প্রাণে মেরে সম্পত্তি দখলের চেষ্টা করে। প্রতিবেশীদের বাধায় তা সম্ভব হয় নি। তবে বৃদ্ধ দম্পতিকে বসতভিটা থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়৷ এরপর বৃদ্ধ দম্পতিকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে পরে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দম্পতির শুধু আর্জি তাদের বড় ছেলের শাস্তির ব্যবস্থা করুক প্রশাসন।