বই প্রচারের ভিডিও থেকে পাওয়া স্ক্রিনশট

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বইয়ের ট্রেলারে তাজমহলের নীচে শিবের উপস্থিতি। হ্যাঁ , ঠিকই পড়ছেন সিনেমার প্রচারের জন্য মুক্তির আগে প্রকাশ করা হয় ট্রেলার। এখন আবার ট্রেলারের আগে টিজার দেখানোর চল চালু হয়েছে। এছাড়াও অভিনেত্রী-পরিচালকেরা নানাবিধ উপায়ে করে থাকেন সিনেমার প্রচার।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদলে গিয়ে প্রচারের সংজ্ঞা। সেই একই পথে বদলে গিয়েছে বই প্রচারের সংজ্ঞা। নতুন বই প্রকাশের আগে তা প্রচার করা হয় নানাবিধ পত্র-পত্রিকায়। কখনও আবার হোর্ডিং বা ফ্লেক্সের মাধ্যমেও প্রচার করা হয়ে থাকে। বইয়ের ক্ষেত্রে সম্পূর্ণটাই হচ্ছিল মূদ্রণ মাধ্যমে।

কিন্তু বই প্রচারের সেই সংজ্ঞাটাই বদলে দিয়েছেন লেখিকা দেবারতী মুখোপাধ্যায়। তাঁর লেখা বই ‘অঘোরে ঘুমিয়ে শিব’-এর প্রচার করছেন ভিডিও-র মাধ্যমে। ঠিক যেন কোনও মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমার ট্রেলার। তবে সিনেমা নয়, মুদ্রিত উপন্যাস। তাও এমন এক উপন্যাস যার মূলে রয়েছে বহু বিতর্কিত তাজমহলের তলায় কি আসলে কোনও শিবমন্দিরের বা শিবলিঙ্গের উপস্থিতি ছিল তা নিয়ে। সিনেমার ট্রেলারে ছবির বিভিন্ন অংশের ভিডিও ক্লিপিংস এবং আকর্ষণীয় ডায়লগ দেখানো হয়। মুদ্রিত বইয়ের ক্ষেত্রে তা সম্ভব নয়। তবুও তেমনই কিছু করে দেখিয়েছেন দেবারতী মুখোপাধ্যায়। যেখানে কাহিনীর বিষয়বস্তু অল্প কথায় তুলে ধরা হয়েছে। ভিডিও-র উপরে ফুটে উঠছে কয়েকটি লাইন। যেগুলি আসলে গল্পের অংশ। আর এর সঙ্গে রয়েছে আবহসংগীত। ঠিক যেমন সিনেমায় থাকে।

এই উপায়েই বইয়ের প্রচারের ক্ষেত্রে নজির গড়ে ফেলেছেন দেবারতী মুখোপাধ্যায়। হুগলী জেলার ডানকুনির মেয়ে হলেন এই দেবারতী। সরকারী কলেজ থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করেন। তারপর এমবিএ করেছেন ফিন্যান্সে। প্রথমে কিছুদিন আমেরিকান আইটি কোম্পানিতে চাকরি করেন কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে। তারপর একে একে পেয়েছেন নানাবিধ সরকারি চাকরি। সংখ্যাটা দুই অংকের কাছাকাছি। চারবছর রাস্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের ম্যানেজার ছিলেন। সম্প্রতি রাজ্য সরকারে জয়েন করেছেন ডবলুবিসিএস অফিসার হিসেবে।

২০১৬ সালের শেষদিকে প্রকাশিত হয় দেবারতীর প্রথম উপন্যাস ‘ঈশ্বর যখন বন্দী’। একবছর সময়ের মধ্যেই শেষ হয়ে যায় চারটি মুদ্রণ। রাজ্য সরকারের তরফে মালদা জেলাপরিষদ তাঁর ‘বাবা’ গল্পটিকে ‘বছরের সেরা ছোটগল্প ২০১৬’ সম্মাননায় ভূষিত করে। এরপর প্রকাশিত হয় একে একে উপন্যাস ‘নরক সংকেত’, গল্প সংকলন ‘ঝিঁঝিঁ পোকার মালা’, গল্প সংকলন ’১৫ ফোঁটা বৃষ্টিতে।’ প্রতিটিই সাদরে গৃহীত হয় পাঠকমহলে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে বৈজ্ঞানিক থ্রিলার উপন্যাস ‘নরক সংকেত’ প্রকাশের মাত্র পাঁচ মাসের মাথায় ৫০০০ কপি নিঃশেষিত হয়ে জিতে নেয় ‘২০১৭ এর সর্বাধিক বিক্রিত থ্রিলার’ এর তকমা। একে একে প্রকাশিত হয় ‘থ্রি’, ‘প্রহেলিকা’র মত আরো কিছু সংকলন।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।